বদরুদ্দোজা চৌধুরী আর নির্বাচন করবেন না

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিকল্পধারা প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক বদরুদ্দোজা চৌধুরী আগামীতে জাতীয় সংসদসহ কোনো নির্বাচনেই আর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না। রাজনীতিতে সক্রিয় থাকলেও নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার বিষয়ে তিনি পারিবারিকভাবে সিদ্ধান্ত প্রায় চূড়ান্ত করেছেন।

এই বিষয়ে তার পুত্র ও বিকল্পধারার ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাহী বি. চৌধুরী এই প্রতিবেদককে বলেন ‘আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা এখনো না দিলেও অধ্যাপক বি. চৌধুরীর আগামীতে নির্বাচনে আর প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করার সম্ভাবনা রয়েছে’। নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচন গত ২৯ ডিসেম্বর যদি অনুষ্ঠিত না হতো তাহলে তখনই নির্বাচনে আর প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করতেন বি. চৌধুরী। নির্বাচনের এক সপ্তাহ আগে তিনি এই প্রতিবেদককে বলেছিলেন, ২৯ ডিসেম্বর নির্বাচন না হলে আর অংশ নেব না। এত টাকাও নেই, শরীরও কুলোয় না। ডাক্তারও আমাকে এসব থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২৯ ডিসেম্বরের নির্বাচনে ঢাকা-৬ ও মুন্সীগঞ্জ-১, এই দুটি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন অধ্যাপক বি. চৌধুরী। দুই আসনেই তার অবস্থান ছিল তৃতীয়। ঢাকা-৬ আসনে ‘কুলা’ প্রতীকে তিনি পেয়েছেন মাত্র ৫ হাজার ২১৫ ভোট। মুন্সীগঞ্জ-১ আসনে পেয়েছেন ৩৭ হাজার ৭০৯ ভোট। পূর্ববর্তী নির্বাচনের তুলনায় এবারের নির্বাচনে খারাপ ফলাফল করায় দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বিকল্পধারার প্রেসিডেন্ট পদ থেকে পদত্যাগ করেন বি. চৌধুরী। দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সিদ্ধান্তে কিছুদিন পর তিনি স্বপদে ফিরেন। তবে তিনি নির্বাহী দায়িত্বে নেই। তার স্থলে নির্বাহী দায়িত্ব পালন করছেন ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট ড. নূরুল আমিন বেপারী।

উল্লেখ্য, বিগত ২০০১ সালের নির্বাচনে মুন্সিগঞ্জ-১ আসন থেকে বি. চৌধুরী সর্বশেষ এমপি নির্বাচিত হন। তখন তিনি ছিলেন বিএনপিতে, নির্বাচন করেন ‘ধানের শীষ’ প্রতীকে। এরপর রাষ্ট্রপতি হওয়ায় তিনি সংবিধান অনুযায়ী দল থেকে পদত্যাগ করেন। নিয়ম অনুযায়ী তার সংসদ সদস্য পদও শূন্য হয়। এরপর উপনির্বাচনে ওই আসনে ‘ধানের শীষ’ প্রতীকে এমপি নির্বাচিত হন মাহী চৌধুরী।

[ad#co-1]

Leave a Reply