হামিদুল্লাহ খান বলেন পিলখানা তদন্ত ভিন্নখাতে ঘোরাতেই বসুন্ধরায় আগুন লাগানো হতে পারে

পিলখানা হত্যাযজ্ঞের প্রকৃত রহস্য উদঘাটনে গঠিত কমিটির তদন্তকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ট্র্যাকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এই তদন্ত দিয়ে সমস্যার সমাধান হবে না। তাই তদন্তকে ভিন্নখাতে ঘোরানোর জন্য বসুন্ধরা সিটিতে আগুন লাগানো হতে পারে। গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবে এক গোলটেবিল বৈঠকে উইং কমান্ডার (অব.) এম হামিদুল্লাহ খান (বীর প্রতীক) এ কথা বলেন।

ফোরাম অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের উদ্যোগে ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা, উন্নয়ন ও জাতীয় ঐক্য’ শীর্ষক বৈঠকে তিনি অভিযোগ করে বলেন, পিলখানা হত্যাযজ্ঞের মতো মহাজাতীয় বিপর্যয়কে খেলার বস্তু হিসেবে দেখা হচ্ছে। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইঞ্জিনিয়ার মির্জা মিজানুর রহমান। ইঞ্জিনিয়ার মো. ইকবালের সভাপতিত্বে এতে আলোচনা করেন ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাক, ইঞ্জিনিয়ার মো. ইসহাক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. ইউএবি রাজিয়া আক্তার বানু প্রমুখ। আলোচকরা বলেন, পিলখানা হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় দল-মত নির্বিশেষে জাতীয় ঐক্যের প্রয়োজন। এক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে সরকারকেই। জাতীয় ঐক্য সৃষ্টির জন্য সকল পেশাজীবীর ঐক্যবদ্ধ হয়ে সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করা উচিত।

Leave a Reply