মুন্সীগঞ্জে পদ্মা চরের মাটি কেটে নেয়া হচ্ছে

মুন্সীগঞ্জের বাংলাবাজার ও আধারা ইউনিয়নের বানিয়াল মহেশপুর ও ভাসানচর এলাকায় পদ্মার বুকে জেগে ওঠা চরের লাখ লাখ টাকার মাটি প্রতিদিন কেটে নিয়ে যাচ্ছে আওয়ামী লীগের কর্মী নামধারী একদল দুর্বৃত্ত। তারা প্রতিদিন ভোর রাত থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত প্রকাশ্যে মাটি কেটে ইঞ্জিনচালিত ট্রলারে করে নিয়ে অন্যত্র বিক্রি করছে। স্থানীয় চেয়ারম্যান মেম্বাররা অবৈধভাবে মাটি কাটার বিষয়টি জানলেও ভয়ে প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছেন না। দুর্বৃত্তরা চরের জমির ভুয়া মালিক বানিয়ে প্রতিদিন বিভিন্ন স্থান থেকে ৩০/৪০টি ট্রলার ভর্তি করে মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে। বাংলাবাজার ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মর্তুজা ও স্থানীয় গ্রাম পুলিশ নাসিরউদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। গ্রামবাসী জানায়, গত বছর
পদ্মার বুকে বানিয়াল মহেশপুর ও ভাসানচর মৌজায় বিশাল চর জেগে ওঠে। স্থানীয় প্রশাসনও জেগে ওঠা চরের বিষয়টি অবগত রয়েছে। তবে এই চরে কাদের জমি পড়েছে বা কতটুকু তা মাপজোখ না হওয়ায় চরটি খালি পড়ে আছে। এ সুযোগে বানিয়াল মহেশপুর এলাকার চরে আওয়ামী লীগ কর্মী খোকন, ময়না, সালাউদ্দিন ও রুহুল আমিন ও ভাসানচর এলাকায় অপর একটি গ্রুপ দলবল নিয়ে প্রতিদিন মাটি কেটে নিয়ে বিক্রি করছে। এভাবে তারা মাসে কয়েক কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতারা বিষয়টি অবগত হলেও রহস্যজনক কারনে বাধা দিচ্ছেন না।

Leave a Reply