মহাজোট সরকারের কাঁচামরিচে ঝাঁজ বেশ!

বিএনপির দফতর সম্পাদকের মন্তব্য
বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির দফতর সম্পাদক রুহুল কবীর রিজভী আহম্মেদ মহাজোট সরকারকে বিদ্রূপ করে বলেছেন, বর্তমান সরকার ভোটারদের ভোটের আগে যে নির্বাচনী ইশতেহার দিয়েছিলেন তা রক্ষা করছে না। নির্বাচনী ইশতেহারে মহাজোট কম দামে চাল, তরিতরকারি খাওয়াবে বলে অঙ্গীকার করেছিল। কিন্তু ক্ষমতায় আসার পর মহাজোটের ক্ষমতার বেশ ঝাঁজ হয়েছে। তারা ৫ টাকার কাঁচামরিচ এখন ২০০ টাকায় খাওয়াচ্ছে। জনগণ এখন মহাজোটের কাঁচামরিচের বেশ ঝাঁজ পাচ্ছে। সোমবার বিকেলে তিনি মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে বক্তৃতাকালে এ মন্তব্য করেন।

জেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাবেক প্রতিমন্ত্রী মিজানুর রহমান সিনহার সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন কেন্দ্রীয় বিএনপির নেতা শফি বিক্রমপুরী, কেন্দ্রীয় যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, বাবুল আহম্মেদ, মীর সরাফত আলী সপু, আতোয়ার রহমান বাবুল, আবদুল আজিম স্বপন, নাজমা সিকদার প্রমুখ।
=================================================

মুন্সিগঞ্জে বিএনপির সম্মেলন একাংশ যোগ দেয়নি

মুন্সিগঞ্জ জেলা বিএনপির দ্বিবার্ষিক সম্মেলন গতকাল সোমবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে সম্মেলনে জেলা বিএনপির একটি অংশ যোগ দেয়নি। এ সম্মেলনকে একতরফা আখ্যায়িত করে ওই পক্ষ আদালতের নিষেধাজ্ঞা চেয়ে ব্যর্থ হয়েছে। সম্মেলনকে ঘিরে মুন্সিগঞ্জে এ পর্যন্ত আদালতে চারটি মামলা হয়েছে।

জানা গেছে, সম্মেলনে ৫৫৮ জন কাউন্সিলরের মধ্যে অনেকেই অনুপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত কাউন্সিলররা ভোট দিয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করেন। তবে জেলা বিএনপির সভাপতি পদে মো. আব্দুল হাই ছাড়া আর কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় তিনি নির্বাচিত হন। সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন রিপন মল্লিক।

গতকাল মুন্সিগঞ্জ শহরের উপকণ্ঠে মুক্তারপুরে এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। জেলা বিএনপির আহ্বায়ক মিজানুর রহমান সিনহার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মির্জা আব্বাস। বিশেষ অতিথি ছিলেন দপ্তর সম্পাদক রিজভী আহমেদ, বিএনপির নেতা শফি বিক্রমপুরী, সরফত আলী সপু প্রমুখ।

এ সম্মেলনের বিরোধিতাকারী জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক শাহজাহান শিকদার জানান, যুগ্ম আহ্বায়কদের মধ্যে অনেককে সম্মেলনে ডাকা হয়নি। একতরফাভাবে সম্মেলন করা হয়েছে। জেলার ছয়টি উপজেলার কমিটি গঠন নিয়ে সমস্যা রয়েছে। এ নিয়ে আদালতে চারটি মামলা হয়েছে। কোথাও পাল্টাপাল্টি কমিটি হয়েছে।

সভাপতি আব্দুল হাই বলেন, বিভিন্ন জায়গায় উপজেলা কমিটি করতে বাধা দেওয়া হয়েছে। তার পরও সম্মেলন সফল হয়েছে।

প্রথম আলো

[ad#co-1]

Leave a Reply