ভাষা শহীদদের প্রতি চরম অবমাননা

টোকিও শহীদ মিনার মঞ্চে ২১শে ফেব্র“য়ারি পালিত হচ্ছে ‘পিঠাপুলির উৎসব’
অবিসাষ্য হলেও সত্য স্বাধীনতাবিরোধী এক ব্যক্তির আয়োজনে আগামী ২১শে ফেব্র“য়ারি টোকিও শহীদ মিনারে পালিত হচ্ছে ‘পিঠাপুলির উৎসব’ কালো ব্যাজ আর নগ্নপদে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা প্রদর্শণের চিরায়ত ঐতিহ্য বদলিয়ে শীতের দিনের গরম পিঠা আর গরম চা খেতে খেতে আমরা স্মরণ করবো ৫২ এর ভাষা আন্দোলনের বীরদের।

প্রশ্ন হচ্ছে কতটা নোংরা মানষিকতা থাকলে মহান ভাষা দিবসের এই মর্যাদাপূর্ণ দিনটিকে পিঠাপুলির উৎসব হিসেবে চালিয়ে দেয়া যায়? বিতর্কিত এই লোকের স্পর্ধার উৎস কোথায়? দেশ যখন যুদ্ধপরাধীদের বিচারের দাবিতে সোচ্চার তখন কেন গোপন মিশন নিয়ে শহীদ বরকত, রফিক, সালামদের আত্মত্যাগের দিনটিকে শীতের পিঠা উৎসব করতে চান? ভাষা শহীদ দিবস কি একটি উৎসব? কত রক্ত আর জীবনের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের স্বাধীনতা কি তার মতো জাপানী নাগরিকত্ব নেয়া একজন বিকৃত মানুষের হাতে বন্দী?

ঝাল চিতাই, দুধ চিতাই, ভাপা পিঠা আর মালপোয়ার বড় ছবি ছাপিয়ে সেই লোভে যাওয়া প্রবাসীদের জিম্মি করতে চান? রাষ্ট্রদূত আর দূতাবাসের এই অপচেষ্টা ঠোকানোর কি কোনও দায়িত্ব নেই?? বাংলাদেশ নামটি ব্যবহার করে স্পন্সর জাপানী কোম্পানির কাছ থেকে হাজার হাজার মান ইয়েন লুটপাটের এই ব্যবসায় কারা কারা শরিক তাদের চিনে রাখা জরুরী।

প্রবাসীরা ভাষা শহীদদের নিয়ে এই তামাশা যে কোন ভাবেই ঠেকাবে। টোকিও শহীদ মিনারেই এর জবাব দেবে।

জাহেদুল মিলু, টোকিও
zahedmilu@gmail.com

Leave a Reply