মুন্সীগঞ্জে কৃষক-গ্রামবাসী ও সন্ত্রাসীদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ২০

মুন্সীগঞ্জের চরাঞ্চলের দক্ষিন চরমুশুরা গ্রামে বৃহস্পতিবার আলু উত্তোলন ও কোল্ড ষ্টোরেজে সংরক্ষনে বাঁধা দেয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে কৃষক-গ্রামবাসী ও সন্ত্রাসী বাহিনীর মধ্যে হামলা, সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় কৃষক-কৃষানীসহ ২০ জন আহত হয়েছে। জমি থেকে আলু উত্তোলন ও বস্তায় ভরে সংরক্ষনের জন্য ট্রলিতে করে কোল্ড ষ্টোরেজে নিতে গেলে চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা বাঁধা দিলে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টার দিকে চিহ্নিত সন্ত্রাসী রফিক বেপারীর নেতৃত্বে চরাঞ্চলের চরকেওয়ার ইউনিয়নের টরকী গ্রামের নয়ন, মামুনসহ ২০-২৫ জনের একটি বাহিনী চরমুশুরা গ্রামের কৃষক বাতেন সরকারের জমিতে আলু উত্তোলন ও আলু বস্তাবন্দি করে কোল্ড ষ্টোরেজে নিতে বাঁধা দেন।

সন্ত্রাসীরা এ সময় কৃষকের কাছে তাদের নিজস্ব ট্রলিতে করে আলু কোল্ড ষ্টোরেজে নেয়ার দাবি করে। অন্যথায় ২ লাখ টাকা চাঁদা দেয়ার জন্য চাপ দেয়।

এতে দক্ষিন চরমুশুরা গ্রামের কয়েক শতাধিক লোক কৃষকের পক্ষ নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হন। গ্রামবাসী- কৃষক ঐক্যবদ্ধ ভাবে সন্ত্রাসীদের প্রতিরোধ করতে গেলে উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে।

এতে আহতদের মধ্যে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় কৃষক বাতেন সরকার (৬২), মজিতুনকে (৬০) মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপর আতদের মধ্যে কৃষক আক্তার মিজি (৪০), গ্রামবাসী বাছেদ (৩২), নিজাম (৩৬), দিদিার (২৮), মোহন (২৬), মোহর আলী (২৪), মোসলেম বেপারী (৪৭) ও জহুরুল হককে (২২) বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

[ad#co-1]

Leave a Reply