গজারিয়ায় নদী থেকে বালু উত্তোলন

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার টান বলাকী ও ভাটি বলাকী গ্রাম-সংলগ্ন মেঘনা নদী থেকে অবৈধভাবে ড্রেজার দিয়ে বালু তোলা হচ্ছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, রবেতাগী মৌজায় মেঘনার বালুমহাল ইজারা নিয়েছেন আবদুল মান্নান সরকার। কিন্তু তাঁর লোকজন ওই এলাকার বাইরে থেকে বালু তুলে নিয়ে যাচ্ছে।

গ্রামবাসী লতিফ মিয়া, মুরাদ মিয়া, লস্কর বেপারী জানান, দীর্ঘদিন ধরে বালু তোলায় এলাকার ৩০ থেকে ৩৫ বিঘা জমি নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। বালু তোলা অব্যাহত থাকলে তাঁদের বসতবাড়িও বিলীন হয়ে যাবে। ভাটি বলাকী গ্রামের বাসিন্দা মাহাবুব আলম খান জানান, ইজারা দেওয়া মহালের বাইরে নদীর তীর থেকে বালু তোলায় তীরবর্তী ওই দুটি গ্রাম ভাঙনের আশঙ্কায় রয়েছে। এ বিষয়ে গ্রামবাসী স্থানীয় প্রশাসন বরাবর লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পরও রাতের আঁধারে বালু তোলা অব্যাহত রয়েছে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) মামুনুর রশিদ জানান, ইজারাবহির্ভূত স্থান থেকে বালু তোলার দায়ে কিছুদিন আগে অভিযান চালিয়ে তিনটি ড্রেজার আটক ও চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

ইজারাদার আবদুল মান্নান সরকার বলেন, ‘ইজারাবহির্ভূত জায়গা থেকে যারা রাতের আঁধারে বালু তোলে, তাদের সঙ্গে আমাদের কোনো সম্পর্ক নেই। আমাদের লোকজন ইজারা পাওয়া মহাল থেকেই বালু তোলে।’

[ad#co-1]

Leave a Reply