শ্রীনগরে পদ্মার ভাঙন

প্রমত্তা পদ্মার ভাঙনে বিলীন হয়ে যাচ্ছে মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার বিস্তীর্ণ এলাকা। হুমকির মুখে পড়েছে ঐতিহ্যবাহী ভাগ্যকুল ও বাঘড়া বাজার। গত দুই সপ্তাহের ভাঙনে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে বাজারের বেশ কয়েকটি দোকান ও আশপাশের বসতবাড়িসহ তিনটি ইউনিয়নের নানা স্থাপনা। এলাকাবাসীর অভিযোগ ভাঙন ঠেকাতে নেয়া হচ্ছে না কার্যকরী কোনো পদক্ষেপ। প্রতি বছর বর্ষার শুরুতে ভয়াল রূপ ধারণ করে পদ্মা। গত পাঁচ বছরে নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে কয়েকশ একর ফসলি জমি, বসতবাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। এ বছরও তার ব্যতিক্রম নয়। শ্রীনগরে পদ্মা নদীতে পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে শুরু হয়েছে ভয়াবহ ভাঙন।

ইতিমধ্যেই শ্রীনগরের ভাগ্যকুল, বাঘড়া ও কামারগাঁও ইউনিয়নের ফসলি জমি, অর্ধশতাধিক বসতবাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মন্দির ও চলাচলের রাস্তা পদ্মার ভয়াল থাবায় নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। হুমকির মুখে রয়েছে আরো অনেক স্থাপনা ও শত শত একর কৃষি জমি। পূর্ব পুরুষের শেষ সম্বল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটি বাঁচাতে নিজস্ব উদ্যোগে বাঁশ ও টিন দিয়ে বাঁধ নির্মাণ করে ভাঙন ঠেকাতে চেষ্টা করছেন ভাগ্যকুল ও বাঘড়া বাজারের দোকানিরা। কিন্তু ঠেকানো যাচ্ছে না ভাঙন।

[ad#co-1]

Leave a Reply