পদ্মা সেতু ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে উম্মুক্ত করা হবে: যোগাযোগমন্ত্রী

সাইফুল ইসলাম তালুকদার: যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন বলেছেন, মাওয়া-জাজিরা পয়েন্টে পদ্মা সেতু নির্মাণ কার্যক্রম দ্রুত এগিয়ে চলছে। ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতু জনগণের চলাচলের জন্য উম্মুক্ত করা হবে। তিনি বলেন, পাটুরিয়া-গোয়ালন্দ পয়েন্টে দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্যও পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। গতকাল পুরাতন বিমানবন্দরের রানওয়েতে বিআরটিসির ১শ সিএনজিচালিত নতুন বাস চলাচল উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে যোগাযোগমন্ত্রী একথা বলেন।

যোগাযোগ খাতের উন্নয়নে সরকারের গৃহীত নানামুখি পদক্ষেপের সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দিয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় যোগাযোগ মন্ত্রণালয় দেশে সুসমন্বিত যোগাযোগ কাঠামো গড়ে তুলতে কাজ করছে। এরই অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে শহীদ বুদ্ধিজীবী সেতু ও ঢাকা বাইপাস সড়ক যাতায়াতের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে। ঢাকা রিং রোড তৈরির লক্ষ্যে গাবতলী থেকে শিরনিরটেক-সোয়ারিঘাট রাস্তা নির্মাণ শেষ হয়েছে। রাজধানীতে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের কাজও শিগগিরই শুরু হবে।

তিনি আরো বলেন, দ্বিতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু ও ৩য় কর্ণফুলী সেতু শিগগিরই যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হবে। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চার লেন-এর কাজ ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে। একই সড়কে এক্সপ্রেসওয়ে তৈরির কাজও হাতে নেয়া হয়েছে। এছাড়া চট্টগ্রামে কর্ণফুলি নদীর নিচ দিয়ে কর্ণফুলি টানেল, ঢাকায় জাহাঙ্গির গেট-আগারগাঁও-রোকেয়া সরণি টানেলসহ অনেক প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। মন্ত্রী বলেন, এসব প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসবে।

[ad#co-1]

Leave a Reply