মুন্সীগঞ্জে শহীদ মতিউরের নামে রাস্তা উদ্বোধন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন বলেছেন, জঙ্গীবাদ, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসবাজ ও টেন্ডারবাজ জীবন দিয়ে হলেও বাংলার মাটি থেকে উচ্ছেদ করবই। মুজাহিদরা যতই বাতাসে উড়িয়ে দেয়ার কথা বলুক যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হবেই। তারা শত অপচেষ্টা চালিয়ে বঙ্গবন্ধুর রায় কার্যকর ঠেকাতে পারেনি। ৫ জনের ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে, বঙ্গবন্ধর বাকি ৬ খুনীকে ইন্টারপোলের মাধ্যমে দেশে এনে ফাঁসিতে ঝুলানো হবে। তিনি মঙ্গলবার বিকেলে গজারিয়া উপজেলার ভবেরচরে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমান জাহাঙ্গীরের নামে রাস্তা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এ কথা বলেন। গজারিয়া উপজেলার চেয়ারম্যান রেফায়েতউল্লাহ খান তোতার সভাপতিতত্বে আরও বক্তব্য রাখেন শহীদ জাহাঙ্গীরের সহোদর বোন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা ফজিলাতুন্নেসা ইন্দিরা, জেলা প্রশাসক মোঃ আজিজুল আলম, হাফিজ আহম্মেদ, সলেমান দেওয়ান প্রমুখ। এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা শহীদ মতিউর রহমানর জাহাঙ্গীর নামে রাস্তার নামকরণ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন। ভবেরচর ঈদগাহ থেকে ভবেরচর বাজার মসজিদ পর্যন্ত এই সড়কটি প্রায় এক কিলোমিটার দীর্ঘ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিরোধী দলের হরতাল আহ্বানের সমালোচনা করে প্রশ্ন করেন কেন এই হরতাল আহ্বান করা হলো জাতি তা জানতে চায়। তিনি বলেন, যে কোন সময়ের চেয়ে বর্তমান দেশের অবস্থা ভাল। জাতিকে শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে এবং কৃষি, নারীর ক্ষমতায়ন, মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ মূল্যায়নসহ মানুষের উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বর্তমান সরকারের ২০২১ সালের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার বিভিন্ন কর্মকাণ্ড বর্ণনা করেন।

‘৭১ সালের সালের ৭ ডিসেম্বর এই বীর বাঙালী নিজের জীবন বিসর্জন দিয়ে ৬টি গ্রামকে রক্ষা করেছিলন। তাই পুরনো বাউশিয়া, দড়ি বাউশিয়া, চর বাউশিয়া, পুরাচক বাউশিয়া, মধ্য বাউশিয়াসহ ৬টি গ্রামের মানুষ শহীদ মতিউর রহমান জাহাঙ্গীরের কাছে বিশেষভাবে ঋণী।

[ad#co-1]

One Response

Write a Comment»
  1. খুব ভালো লাগলো…

Leave a Reply