ধলেশ্বরীতে বালুমহালের সীমানা নির্ধারণের কাজ শুরু আজ

দুই জেলার শীর্ষ কর্মকর্তাদের বৈঠক
ধলেশ্বরী নদীতে বালু উত্তোলন নিয়ে বিরোধ মেটাতে বুধবার মুন্সীগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জের ডিসি ও এসপি পর্যায়ে বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে দুই জেলার সরকারি কর্মকর্তাদের যৌথ উদ্যোগে বালুমহালগুলোর সীমানা নির্ধারণ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। আজ বৃহস্পতিবার থেকে সীমানা নির্ধারণের কাজ শুরু হবে। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সভাটি শুরু হয়।

এদিকে বুধবার বিকালে বালুমহালে ইজারাদার সমিতির পক্ষ থেকে নিহত ছাত্রলীগ নেতা মামুনের মুন্সীগঞ্জ শহরের দেওভোগ বাড়িতে গিয়ে পরিবারকে নগদ ৫ লাখ টাকা দেয়া হয়েছে। সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন মামুনের মা সালমা বেগম ও বাবা শামসুল হকের হাতে এই টাকা তুলে দেন। এই সময় বালুমহালে ইজারাদার সমিতির সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন,ইজারাদার আফছার উদ্দিন ভুঁইয়া আপছু,ফয়সাল বিপ্লব,আব্দুল মান্নান সরকার,আমিরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদিকে বালুমহালের বিরোধে খুন হওয়া মামুন হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত গোলাপকে এক দিনের রিমান্ড শেষে বুধবার জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তার কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে বলে ওসি শহীদুল ইসলাম জানিয়েছেন।

ইত্তেফাক
——————————————————————
ছাত্রলীগ নেতার পরিবারকে ৫ লাখ টাকা প্রদান
বালুমহালের সীমানা নির্ধারণে মুন্সিগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জে শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠক

বালুমহালের সীমানা নিয়ে সৃষ্ট জটিলতার অবসান করতে মুন্সিগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার এবং সংশ্লিষ্ট অন্য প্রশাসনিক কর্মকর্তারা গতকাল বুধবার এক বৈঠকে মিলিত হন। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে সোমবারের মধ্যে দুই জেলার সার্ভেয়ার এবং ভূমি কর্মকর্তারা মুন্সিগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জের ধলেশ্বরী ও শীতলক্ষ্যা নদীতে সীমানা নির্ধারণ করে দেবেন বলে সিদ্ধান্ত হয়।

গত রোববার মুন্সিগঞ্জের ধলেশ্বরী নদীতে বালুমহালের ইজারার টাকা সংগ্রহ করতে গিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় ছাত্রলীগের নেতা আল মামুন মণ্ডল নিহত হন। এ ঘটনায় একই সংগঠনের অন্য এক নেতাসহ পাঁচজন আহত হন। হত্যাকাণ্ডের পেছনে দুই জেলার সীমানা-সংক্রান্ত জটিলতাও একটি কারণ বলে জানা যায়। এ ঘটনায় পরের দিন মুন্সিগঞ্জ থানায় নিহতের চাচা বাদী হয়ে বন্দর উপজেলার মদনগঞ্জ বালুমহালের ইজারাদার চান মিয়াসহ ১২ জনকে আসামি করে মামলা করেন।

মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, গতকাল রাত আটটায় নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে কর্মকর্তারা আলোচনায় বসেন। এ সময় মদনগঞ্জ বালুমহালের ইজারাদাররাও উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা শেষে সিদ্ধান্ত হয়, আগামী সোমবারের মধ্যে মুন্সিগঞ্জ সদর ও নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও সার্ভেয়ার সরেজমিনে নদীতে গিয়ে সীমানা নির্ধারণ করে দেবেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মুন্সিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. আজিজুল আলম, পুলিশ সুপার মো. শফিকুল ইসলাম ও নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. শামসুর রহমান, পুলিশ সুপার বিশ্বাস আফজাল হোসেন, নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার (ভূমি-বন্দর) মো. মুফিদুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার (সদর) মাহবুবুর রহমান প্রমুখ।

ছাত্রলীগ নেতার পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা প্রদান:
মুন্সিগঞ্জে নিহত শহর ছাত্রলীগের সহসভাপতি আল মামুন মণ্ডলের পরিবারকে জেলার চারটি বালুমহালের ইজাদারদের পক্ষ থেকে পাঁচ লাখ টাকা দেওয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকেল চারটার দিকে সাবেক সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মহিউদ্দিন মামুনের পিতা শামসুল হক মণ্ডলের হাতে এই টাকা তুলে দেন। এদিকে মামুনের নিহতের প্রতিবাদে ৫ জুন জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে জেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে এক শোকসভা আহ্বান করা হয়েছে।

এ সময় ছাত্রলীগ নেতার দেওভোগের বাড়িতে ইজাদারদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আমিরুল ইসলাম, আবদুল মান্নান, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফসার উদ্দিন ভূঁইয়া, জেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মাহমুদ রিয়াদ প্রমুখ। মামুনের বাবা শামসুল হক মণ্ডল জানান, তিনি পাঁচ লাখ টাকা পেয়েছেন।

প্রথম আলো

[ad#co-1]

Leave a Reply