বদরুল বোরহান-এর গল্পগ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব

সাপ্তাহিক পাঠক ফোরাম জাপান-এর সভাপতি, বাংলাদেশ সাংবাদিক-লেখক ফোরাম জাপান-এর প্রাক্তন সভাপতি, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, বিশিষ্ট ছড়াকার বদরুল বোরহানের প্রথম গল্প সঙ্কলন ‘বিশুদার কা-’ প্রকাশনা উৎসব উপলক্ষে সাহিত্যপ্রেমী প্রবাসীদের মিলনমেলা হয়েছে টোকিওর কিতা সিটি আকাবানে বুনকা সেন্টার বিভিও হলে। বাংলাদেশ সাংবাদিক-লেখক ফোরাম জাপান এই অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ফোরামের সভাপতি সজল বড়–য়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিতব্য প্রকাশনা উৎসব আলোচনাসভা পরিচালনা করেন ফোরামের সাবেক সভাপতি বাকের মাহমুদ। প্রধান অতিথির আসন অলঙ্কৃত করেন টোকিওস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের কমার্স কাউন্সিলর আবুল মনসুর মোঃ ফয়েজুল্লা। বিশেষ অতিথি ছিলেন, জাপান বিদেশি সাংবাদিক ক্লাবের সভাপতি, সাংবাদিক, শিক্ষক মনজুরুল হক।

‘বিশুদার কা-’র ওপর বিশদ আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব নাজমুল হুদা, কাউন্সিলর মোঃ মাসুদুর রহমান, রফিক ফরাজী, শওকত হোসেন, মাকসুদুল আলম, তাপস বড়–য়া, প্রবীর বিকাশ সরকার, হোসাইন মুনীর, কাজী ইনসানুল হক, সলিমুল্লাহ কাজল, রাহমান মনি, আনিসুর রহমান, মনজুরুল হক, আবুল মনসুর মোঃ ফয়েজুল্লা প্রমুখ। আলোচকগণ বলেন, ‘বিশুদার কা-’ বদরুল বোরহানের প্রথম কিশোর গল্প সঙ্কলন হলেও ইতোমধ্যে পাঁচটি ছড়াগ্রন্থ প্রকাশ পেয়েছে। গ্রন্থগুলো হচ্ছে ‘চাঁদ বুড়ি ডটকম’, ‘একাত্তরের ছড়া’, ‘ছড়ায় ছড়ায় জাপান’, ‘মিল অমিল’ এবং ‘মন্তব্য নি®প্রয়োজন’। প্রতিটি গ্রন্থই পাঠকপ্রিয়তা পেয়েছে। একজন ছড়াকার থেকে গল্পকার ব্যাপারটা ভাবাটা যত সহজ বাস্তবে কাজটা কিন্তু খুবই কঠিন। তা আবার কিশোর গল্প। শিশু-কিশোর মনস্ক সাহিত্য রচনা যে বড়ই কষ্টসাধ্য একটি কাজ সচেতন পাঠক মাত্রই তা জানেন। বদরুল বোরহান সেই কঠিন কাজটি করে প্রমাণ করেছেন যে, তিনি শুধু ছড়াকারই নন। একজন গল্পকারও।

গল্পকার হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেই বদরুল বোরহান যথেষ্ট মুনসিয়ানা পরিচয় দিয়েছেন। অত্যন্ত সাবলীল ভাষায় প্রকাশিত গল্পগুলো গতিশীল এবং সুখপাঠ্য। কিশোর গল্প হলেও সব বয়েসী পাঠকদের পাঠ উপযোগী প্রতিটি গল্প।

‘বিশুদার কা-’ গল্প গ্রন্থটিতে মোট বারোটি গল্প স্থান পেয়েছে। প্রতিটি গল্পই নাতিদীর্ঘ। গল্পগুলো হচ্ছে, বিশুদার কা-, স্বপ্নের দেশে, বানভাসি, মামার সঙ্গে একদিন, ফুলের জন্যে, ঈদের খুশি, একাত্তরের এ্যালবাম, স্বপ্ন, গুলমামা, অপেক্ষা, স্বাধীনতা এবং ওভার ব্রিজে। প্রায় প্রতিটি গল্পই মনে হবে নিজের পরিচিত ঘটনারই নিখুঁত বর্ণনা। পরম মমতায় তুলে এনেছেন ঝরে যাওয়া ছিন্নমূল অনাথ শিশু-কিশোরদের জীবন সংগ্রামের কথা। তারা এই সমাজেরই একটি অংশ। যে বয়সে বই-খাতা নিয়ে বিদ্যালয়ে যাওয়ার কথা। সেই বয়সে জীবন-জীবিকার তাগিদে এবং সংসার নামের প্রতিষ্ঠানের ভার কাঁধে নিয়ে জীবন বাজি রেখে ঝুঁকি নিয়ে কাজ করার ক্ষেত্রে কিছু কিছু ক্ষেত্রে দুর্ঘটনার শিকার হয়ে অকালে ঝরে যাচ্ছে শিশু-কিশোররা। সেই চিত্রগুলো স্বপ্নের দেশে, বানভাসি, ঈদের খুশি, স্বপ্ন, অপেক্ষা এবং ওভার ব্রিজের গল্পের মাধ্যমে তুলে ধরেছেন গল্পকার বদরুল বোরহান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমার্স কাউন্সিলর আবুল মনসুর মোঃ ফয়েজুল্লা বলেন, জাপান প্রবাসী কমিউনিটি সংখ্যায় দিক থেকে ছোট হলেও সাহিত্য সংস্কৃতি খুবই সমৃদ্ধ। এই ব্যস্ততম জীবনে প্রতিটি মুহূর্ত যেখানে ব্যস্ত থাকতে হয় সেখানে সাহিত্য চর্চা খুবই কষ্টসাধ্য। অথচ জাপানেই প্রবাসীরা আয়োজন করে কবিতা উৎসব, সাহিত্য সভা। একাধিক প্রবাসী বের করছেন একাধিক গ্রন্থ, সেগুলো পাঠকপ্রিয়তা পাচ্ছে এখানে রয়েছে একাধিক পোর্টান পরিচালিত হচ্ছে, নিয়মিত ম্যাগাজিন, ভাবলেই বুকটা ভরে যায়। আমি পৃথিবীর অনেক দেশে গিয়েছি কিন্তু জাপান প্রবাসীদের মতো সাহিত্যমনা আর কোথাও দেখিনি।

সাপ্তাহিক পাঠক ফোরাম জাপান-এর সভাপতি বদরুল বোরহান সাহিত্যকর্মে দেশ-বিদেশে প্রচুর সাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন। স্থান করে নিয়েছেন বাংলা একাডেমী কর্তৃক প্রকাশিত লেখক অভিধানে। মূলত ছড়াকার হলেও পাশাপাশি গল্প, কবিতা এবং খেলাধুলা বিষয় ফিচারও লিখে থাকেন বিভিন্ন সংবাদপত্রে। লেখালেখি ছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকা-ের সঙ্গে জড়িত।

‘বিশুদার কা-’ মোড়ক উন্মোচন করেন আবুল মনসুর মোঃ ফয়েজুল্লা এবং মনজুরুল হক যৌথভাবে। অতিথিগণ লেখকের সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু ও দীর্ঘ লেখকজীবন কামনা করেন।

rahmanmoni@gamil.com

[ad#co-1]

Leave a Reply