মুন্সীগঞ্জে পিটিয়ে বাঘের বাচ্চা হত্যা

সেতু ইসলাম, মুন্সীগঞ্জ
খাবারের খোঁজে ঝোপ-জঙ্গল ছেড়ে লোকালয়ে আসা এক বাঘের বাচ্চাকে মুন্সীগঞ্জের গ্রামবাসী পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে। গতকাল বুধবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জ শহরের কাছে পঞ্চসার ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামবাসীর হাতে ধরা পড়ে লোকালয়ে আসা হলুদ রংয়ের ডোরা কাটা বাঘের বাচ্চা। জনতা ওই বাঘকে লাঠিসোঁটা দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে ও কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে বিকালের দিকে শহরের কাছে কাটাখালীস্থ জেলা বন বিভাগের অফিসে রক্তাক্ত আহত বাঘটি চিকিৎসার জন্য আনা হয়।

বিকাল ৪টার দিকে বন বিভাগের কর্মকর্তাদের অধীনে থাকা অবস্থায় বাঘটি মারা যায় বলে সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

জেলা বন বিভাগ সূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে হলুদ ডোরাকাটা একটি বাঘের বাচ্চা ঝোপ-জঙ্গল ছেড়ে লোকালয়ে ঢুকে পড়ে। এ সময় জেলার সদর উপজেলার পঞ্চসার ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের মাঠের মধ্যে বাঘটি বিচরণ করছিল। খাবারের খোঁজে বাঘের বাচ্চাটি ঘোরাঘুরি করতে থাকলে গ্রামের লোকদের চোখে পড়ে। এতে অর্ধ-শতাধিক লোক লাঠিসোঁটা ও, বল্লম নিয়ে রতনপুর মাঠের চারপাশ ঘিরে ফেলে। দীর্ঘক্ষণ চারদিক থেকে ঘিরে বল্লম, জুঁইত্যা ছুড়ে বিধ্বস্ত করে বাঘের বাচ্চাকে। এতে গ্রামবাসীর ছুড়ে মারা জুঁইত্যা ও বল্লমের আঘাতে গুরুতর জখম হয় ওই বাঘের বাচ্চা। এভাবে বাঘটি ধরে রশি পা বেঁধে দেয়। এখানে চিকিৎসার জন্য আনা হলেও বাঘের বাচ্চাটি চিকিৎসা না পেয়েই মারা গেছে, বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান। বিকাল ৫টার দিকে ওই বন বিভাগের ভেতরে বাঘের বাচ্চাটি কবর দেয়া হয়।

[ad#co-1]

Leave a Reply