রাতের পদ্মা বিপদজ্জনক

মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুট
মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুট পাড়ি দিতে বিপদজনক হয়ে পড়েছে রাতের পদ্মা। ঈদের আগে ঘরমুখো যাত্রীদের জন্য বিপদজনক যাত্রা হয়ে উঠেছে পদ্মা পাড়ি। যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। সন্ধ্যা নামার সঙ্গে এই নৌরুটে ট্রলার, লঞ্চ ও সীবোট চলাচলে নিষেধ রয়েছে। তথাপি রাতে শতাধিক লক্কর-ঝক্কর ট্রলার পদ্মা পাড়ি দিচ্ছে হরহামেশা। রাতের পদ্মায় চলছে ফিটনেস বিহীন লঞ্চ ও সীবোট। ঈদের সামনে নাড়ির টানে ছুটে চলা ঘরমুখো যাত্রীদের মিছিলে রাতের নৌরুটেই লক্কর-ঝক্কর মার্কা ট্রলার চলাচলের ব্যস্ততা বেড়েছে। এতে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই ঈদের আগে গ্রামমুখো মানুষের স্রোত নেমেছে। রাতের পদ্মা পাড়ি দিতে মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে গত শনিবার রাতে সংগঠিত ট্রলার দুর্ঘটনা ঘটলে ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের নিয়ে শঙ্কিত সংশ্লিষ্ট দপ্তর। শনিবার রাতে পদ্মায় মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে অল্পের জন্য রক্ষা পায় দুই শতাধিক যাত্রী। রাতের পদ্মায় নৌরুটে চলাচলকারী অধিকাংশ লঞ্চ ও সীবোটের ফিটনেস নেই।

এগুলো পরিচালনায় নেই দক্ষ চালক। এমনই বিপদের মুখেও রাতে নৌরুটে পদ্মা পাড়ি জমাচ্ছে শত শত লঞ্চ-সীবোট ও ট্রলার। মাওয়া পোর্ট অফিসার বাবু বৌদ্ধ লাল জানান, চলাচলরত লঞ্চের তবুতো হেডলাইট আছে। কিন্তু সীবোট ও ট্রলারের তো নেই কোন আলো। তার মধ্যে রাতের পদ্মায় অন্ধকারের মধ্যেই মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে ঈদে ঘরমুখো যাত্রীরা ছুৃটে চলছেন সেই ট্রলার ও সীবোটে। গ্রামের বাড়ি ফেরার এক অভূত-পূর্ব নাড়ির টানে জীবন-মরন কিছুই মানছে না যাত্রীরা।

অন্যদিকে শনিবার দিবাগত রাতে যাত্রী বোঝাই ট্রলার দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষর্শীরা জানান, মাওয়া ট্রলার ঘাট থেকে ২ শতাধিক যাত্রী নিয়ে একটি ট্রলার কাওড়াকান্দির উদ্দেশ্যে রওনা দেবার প্রাক্কালে স্রোতের টানে মাওয়া ৩ নং রো রো ফেরি ঘাটের একটি ফেরির সাথে ধাক্কা লেগে ডুবে যায়। এ সময় যাত্রী সাধারণ হুরাহুড়ি করে ফেরিতে উঠে আত্মরক্ষা চেষ্টা চালায়। এখনও কোন যাত্রীর নিখোঁজ সম্পর্কে কোন তথ্য পাওয়া যায়ািন। মাওয়া নৌ পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এসআই তায়েব রবিবার গতকাল বিকালে জানিয়েছেন, এখনও কোন যাত্রী নিখোঁজের খবর পাওয়া যায়নি। এতে স্পষ্ট এই ট্রলার দুর্ঘটনায় কেউ নিখোঁজ হয়নি। সবার প্রাণই রক্ষা পেয়েছে অল্পের জন্য। এ নৌরুটে রাতে লঞ্চ, সিবোট ও ট্রলার চলাচল নিষিদ্ধ থাকলেও এখানে তা মানা হচ্ছে না । এ ব্যাপারে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেননি। দক্ষিণাঞ্চলের প্রবেশদ্বার মাওয়ার পদ্মায় লাখো মানুষের যাতায়ত নিয়ে স্থানীয় দায়িত্ববানদের অবহেলা সাদা চোখেই বোঝা যায়।

মোহাম্মদ সেলিম, মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি।০১৯১১১৪২৬৭০
২৯ আগস্ট ২০১০

[ad#co-1]

Leave a Reply