মুন্সীগঞ্জে মাধ্যমিক স্কুলে সাড়ে ১১ লাখ বই পৌঁছানোর কাজ পায়নি সর্বনিম্ন দরদাতা

কাজী দীপু ,মুন্সীগঞ্জ: আগামী বছরের শুরুতে মুন্সীগঞ্জের ৬ টি উপজেলার মাধ্যমিক স্কুলগুলোতে বই পৌছে দিতে জেলা শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়ের আহবানকৃত টেন্ডারে সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠানই বাদ পড়েছে। দ্বিতীয় দরদাতা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান প্রায় সাড়ে ১১ লাখ বই পৌছানোর কাজ বাগিয়ে নিয়েছে। সর্বনিম্ন দরদাতা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের থেকে ৬০ হাজার টাকার বেশী দর উল্লেখ্যকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে ওই কাজ দেয়ার এই অভিযোগ জানিয়েছেন সিডিউল দাখিলকারী ঠিকাদাররা।

বৃহস্পতিবার জেলা শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়ে ৬ টি সিডিউল জমা ও টেন্ডারবাক্স খোলা হয়। এতে সর্ব নিম্ন দরদাতা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স সোহাগ এন্টারপ্রাইজ কাজ না পেলেও কাজটি পেয়েছেন দ্বিতীয় দরদাতা হƒদয় এন্টারপ্রাইজ। টেন্ডারে অংশ নেয়া মাজেদ ট্রেডার্সের সত্বাধিকারী মো: শাহীন মিয়া অভিযোগ করে জানান, জেলার ৬ টি উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বই পৌছানোর জন্য ১৪ সেপ্টেম্বর কোটেশন বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে টেন্ডার আহবান করে। কোটেশন বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী সর্বনিম্ন দর দাখিলকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কাজ পাওয়ার কথা। অথচ তার চেয়ে ৬০ হাজার টাকা বেশী দর উল্লেখকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকেই বই পৌছে দেয়ার কাজটি দেয়া হয়েছে। আগামী বছরের শুরুতে মুন্সীগঞ্জ জেলা সদর থেকে ৬ টি উপজেলার মাধ্যমিক স্কুলগুলোতে ১১ লাখ ৩১ হাজার ১’শ ৮৬ টি বই পৌছে দেয়ার জন্য যোগাযোগ ভাড়া বাবদ মেসার্স সোহাগ এন্টারপ্রাইজ ১ লাখ ৮৬ হাজার টাকায় ইচ্ছা প্রকাশ করে সিডিউল দাখিল করে। কিন্তু ২ লাখ ৪৫ হাজার টাকায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান হƒদয় এন্টারপ্রাইজ কাজটি পেয়েছেন। এ ব্যাপারে জেলা শিক্ষা অফিসার মো: শামসুল ইসলাম খানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি।

[ad#co-1]

Leave a Reply