পদ্মা সেতু দিয়ে ট্রেন চলতে লাগবে ১৫২ কিলোমিটার নতুন রেললাইন

তাওহীদুল ইসলাম: নকশা অনুযায়ী পদ্মা সেতুতে রেললাইনের ব্যবস্থা থাকলেও দুই পাড়ে সংযোগ লাইন না থাকায় শুরুতে ট্রেন চলাচল করতে পারবে না। সেতুর ওপর দিয়ে ঢাকা-যশোর সরাসরি ট্রেন চালু করতে হলে নতুন করে ১৫২ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণ করতে হবে।

রেল সূত্র জানায়, নকশা অনুযায়ী দ্বিতলবিশিষ্ট পদ্মা সেতুতে ওপরের তলায় গাড়ি চলবে এবং নিচতলায় চলবে ট্রেন। প্রকল্পে রেললাইন বসানোর জন্য কোনো বরাদ্দ রাখা হয়নি। তাই সেতু তৈরি করবে সেতু বিভাগ এবং রেললাইন স্থাপন করতে হবে রেল কর্তৃপক্ষকে। পদ্মা সেতু দিয়ে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার সরাসরি রেল সংযোগ করতে হলে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থেকে মাওয়া পর্যন্ত ৮৩ কিলোমিটার এবং ফরিদপুরের ভাঙা থেকে পাচুরিয়া পর্যন্ত আরো ৭০ কিলোমিটার রেলপথ বসাতে হবে। এ রেলপথ হলে ঢাকা থেকে ঈশ্বরদী হয়ে যশোর পর্যন্ত রেললাইন চালু করা যাবে। ২০০৮ সালে রেলওয়ে এ সংক্রান্ত একটি উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব তৈরি করে পরিকল্পনা কমিশনে পাঠায়। ওই প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ১৫২ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণে আনুমানিক খরচ হবে সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা।

যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন বলেন, নতুন রেললাইন তৈরি সময়সাপেক্ষ তাই একটু একটু দেরি হবে। তবে রেলওয়ের মহাপরিচালক টিএ চৌধুরী বলেন, ঢাকা থেকে চালু না হলেও সেতু চালুর প্রথমদিকে মাওয়া থেকে রেল যোগাযোগ শুরু হতে পারে।

[ad#bottom]

Leave a Reply