হরতালে মুন্সীগঞ্জে বিএনপি নেতাদের কারখানা খোলা ছিলো

গতকাল সোমবার বিএনবির ডাকা সকাল সন্ধ্যা হরতাল চলা কালে মুন্সীগঞ্জে দলের নেতাদের কারখানাগুলো দিনভর খোলা ছিলো। একাধিক সূত্র এর সত্যতা স্বীকার করেছে। সরেজমিনে দেখা যায়, জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুল হাইয়’র ভাই সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদের মালিকানাধীন মুক্তারপুরস্থ তন্ময় ফিসিং নেট ইন্ডাস্ট্রিজ, অপর ভাইয়ের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান আব্দুল মতিন টেডিং, আব্দুল কাদিরের রুপালী ফিসিং নেট ইন্ডাস্ট্রিজ ও ভাতিজা শিমুর মালিকানাধীন বিসমিল্লাহ ইন্ডাস্ট্রিজে দিনভর কাজ চলেছে।

এ সময় কারখানাগুলোর প্রধান ফটক বন্ধ রাখা হলেও মুন্সীগঞ্জের গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা ইন্ডাস্ট্রিজ খোলা থাকার বিষয়টি প্রত্যক্ষ করেছেন।

সদর উপজেলা বিএনপির মালিকানাধীন মুক্তারপুরস্থ তন্ময় ফিসিং নেট ইন্ডাস্ট্রিজের গেটকিপার মোশারফ হোসেন জানান, অন্যান্য দিনের মতো আজও কারখানায় উৎপাদন চলছে। তিনটি শিফটে ৬ শত শ্রমিক কাজ করছে। স্থানীয়রা জানায়, তাদের মতো মুক্তারপুর, মিরেশ্বর, গোসাইবাগসহ আশপাশের এলাকাগুলোতেও বিএনপির একাধিক নেতার মিল-ইন্ডাস্ট্রিজ খোলা ছিলো।

বিষয়টি নিয়ে গতকাল সোমবার দিনভর চলে মুন্সীগঞ্জ শহরে আলোচনা সমালোচনা। কেউ কেউ বলেন, বিএনপি হরতাল আহ্বান করে মানুষের দোকানপাট, যানবাহন চলাচল বন্ধ রেখে তাদের নেতারা নিজেদের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান খোলা রাখা রেখেছে।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব লুৎফর রহমান এ প্রসঙ্গে বলেন, এ সকল বিএনপি নেতারা নিজেদের আখের গোছাতে রাজনীতি করেন, দেশের জন্য নয়। হরতালের নামে জনগণের দোকানপাট ও যানবাহন বন্ধ রেখে নিজেদের ইন্ডাস্ট্রিজ খোলা রাখাই এর বাস্তব প্রমাণ।

[ad#bottom]

Leave a Reply