মুন্সীগঞ্জে আলুর বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

কাজী দীপু, মুন্সীগঞ্জ: দেশের বৃহত্তম আলু উৎপাদনকারী জেলা মুন্সীগঞ্জে এবার আলু আবাদেও বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। চলতি মাসের শেষের দিকে ও মার্চ মাসে আলু তোলার ধুম পড়বে। কিন্তু বর্তমানে আলুর যে দাম যাচ্ছে, আলু উত্তোলন শুরু হলে তার দাম আরো কমে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এ কারনে লোকসানের ভয়ে অনেক কৃষক একটু আগেভাগেই আলু তুলে ফেলার চিন্তাভাবনা করছে। ইতোমধ্যে কিছু জমি থেকে আগাম আলু তোলা শুরু হলেও বর্তমান বাজারের আলুর দাম কম হওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি নেই।

জানা গেছে, মুন্সীগঞ্জে খোলা বাজারে নতুন আলুর দাম এখন প্রতি কেজি ৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কিন্তু উৎপাদন করতে প্রতি কেজি খরচ পড়েছে ৬-৭ টাকা। এছাড়া আলুর দাম প্রতিনিয়ত যেভাবে কমছে তাতে এক মাস পর উৎপাদন খরচের চেয়ে কমে গেলে কৃষকদের লোকসান গুণতে হবে। এ নিয়ে মুন্সীগঞ্জের আলুচাষিরা উদ্বিগ্ন মনে দিনাতিপাত করছে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে দেশের ৩০ ভাগ আলু উৎপাদন হয় এ জেলায়। এবার আলু আবাদ হয়েছে ৩৮ হাজার ৬ হেক্টর জমিতে। গতবার আবাদ হয়েছিল ৩৬ হাজার ৬৭০ হেক্টর জমিতে। সূত্র আরো জানায়, এ অঞ্চলের কৃষকরা প্রায় দ্বিগুণ সার ব্যবহার করে থাকায় তাদের উৎপাদন খরচ বেশি পড়ে। সদর উপজেলার নয়াকান্দি গ্রামের কৃষক দেলোয়ার মিয়া জানান, মার্চ মাসে আলু তোলা হবে।

এখানে আলুর ফলন এবার খুবই ভালো হবে। গতবারের চেয়ে এবার বেশি আলু পাওয়া যাবে। আবহওয়া ভালো থাকায় কীটনাশক এবার কম লেগেছে। কিন্তু আলু উঠতে উঠতে দাম পাওয়া যাবে না। এবারও লোকসান গুণতে হবে মনে হচ্ছে। টঙ্গীবাড়ি উপজেলার ধীপুর গ্রামের আলুচাষী রমজান আলী জানান, ধার দেনা করে এবারও আলু চাষ করা হয়েছে গতবারের লোকসান পোষানোর আশায়। কিন্তু তা আর হবে না মনে হচ্ছে।

[ad#bottom]

Leave a Reply