মুন্সীগঞ্জ বিএনপির কমিটি অনুমোদন করেছে কেন্দ্রীয় কমিটি

দীর্ঘ ৮ মাস পর মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির দাখিল করা পূর্ণাঙ্গ কমিটিকে অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটি। এতে সাবেক তথ্যমন্ত্রী, সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী, সাবেক প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব ও সাবেক এমপিসহ ১২ শীর্ষ নেতাকে উপদেষ্টা হিসেবে রাখা হয়েছে। তবে কমিটিতে স্থান পাননি বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী এম শামছুুল ইসলামের অনুসারীরা। এর ফলে তাদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বিএনপির প্রভাবশালী কয়েক ত্যাগী নেতাকে বাদ দিয়েই ১২ সদস্যের উপদেষ্টাসহ ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি বিএনপির মহাসচিব খন্দকার দেলোয়ার হোসেন ওই কমিটির অনুমোদন দেন। সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুল হাইকে সভাপতি ও টুঙ্গীবাড়ী উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি আলী আজগর রিপন মল্লিককে সাধারণ সম্পাদক করে জেলা বিএনপি কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এছাড়া এই কমিটিতে জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুল হাইয়ের আত্মীয়-স্বজনদের গুরুত্বপূর্ণ পদে রাখা হয়েছে বলে বাদ পড়া বিএনপি নেতারা দাবি করেছেন।

তারা জানান, সাবেক এমপি উইং কমান্ডার হামিদুল্লাহ খান, লৌহজং উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি সিরাজুল আলম ফুকু, গজারিয়া উপজেলার সভাপতি সিরাজুল ইসলাম পিন্টু, শহর বিএনপির সাবেক সভাপতি শাহজাহান সিকদার, মহিলা দলের নেত্রী রহিমা সিকদারসহ ডজনখানেক স্থানীয় ত্যাগী নেতাদের কমিটিতে রাখা হয়নি ।
কমিটির উপদেষ্টার মধ্যে রয়েছেন-সাবেক তথ্যমন্ত্রী ও স্থায়ী কমিটির সদস্য এম শামসুল ইসলাম, সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, সাবেক স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী মিজানুর রহমান সিনহা, কেন্দ্রীয় বিএনপির নেতা শফি বিক্রমপুরী, বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সহকারী প্রেস সচিব মহিউদ্দিন খান মোহন, কেন্দ্রীয় জাসাসের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বাবুল আহমেদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, এডভোকেট আব্দুল সালাম, শমসের আলম ভূঁইয়া, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আসাদুজ্জামান রিপন, বোরহান সিকদার প্রমুখ। উল্লেখ্য, গত বছরের জুলাই মাসে সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুল হাই ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী এম শামছুুল ইসলামের অনুসারীদের পাল্টা-পাল্টি দু’টি কমিটি কেন্দ্রে জমা দেয়া হয়।

[ad#bottom]

Leave a Reply