পদ্মা নদীতে ট্রলার ডুবিতে ৫ নারী-শ্রমিক নিখোঁজের দাবি

তবে কারো সন্ধান মেলেনি
মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে সোমবার পদ্মা নদীতে সংঘর্ষে ট্রলার ডুবির ঘটনায় বুধবার ৫ নারী-শ্রমিক নিখোঁজ হওয়ার দাবি করা হয়েছে। আহত অন্য নারী-শ্রমিকরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকালে এ দাবি করেন। এর আগে একজন নারী-শ্রমিক নিখোঁজ রয়েছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছিলেন। তবে বুধবার দুপুর পর্যন্ত নিখোঁজ নারী শ্রমিকদের কারোরই সন্ধান মেলেনি।

এবিষয়ে লৌহজং থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই কিবরিয়া বাংলানিউজকে জানান, সোমবার দিবাগত রাতে জেলার লৌহজং উপজেলার ডহুরী এলাকায় পদ্মায় যাত্রীবোঝাই দু’টি ট্রলারের মধ্যে মুখোমুখি ওই সংঘর্ষ হয়। এ সময় একটি ট্রলার নদীতে ডুবে গেলেও অন্যটি পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

ডুবে যাওয়া ট্রলারে অন্তত ১৫ জন নারী-শ্রমিক ছিলেন বলে তিনি বুধবার সকালে বাংলানিউজকে জানান।

এসআই কিবরিয়া জানান, ট্রলার ডুবিতে ৫ নারী-শ্রমিক নিখোঁজ ও ১২ জন আহত হয়েছেন। এরা সবাই ধানকাটা ও ধান মাড়ানোর শ্রমিক।

তিনি জানান, বুধবার সকাল থেকে ডুবুরি দিয়ে উদ্ধার তৎপরতা চালানো হচ্ছে। তবে দুপুর ১টা পর্যন্ত নিখোঁজ নারী-শ্রমিকদের কারোরই সন্ধান পাওয়া যায়নি।

অন্যদিকে, আহত শ্রমিকদের মধ্যে ৪ নারী-শ্রমিক লৌহজং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply