ভাগ্যকূলকে রক্ষা করতে চাই

রাসেল মাহমুদ, মুন্সীগঞ্জ থেকে: প্রমত্তা পদ্মার ভয়াবহ ভাঙনে গত কয়েক বছরে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে শ্রীনগর উপজেলার ভাগ্যকূল ইউনিয়নের একাধিক গ্রাম, কৃষি জমি, ভাগ্যকূল বাজার, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বসত বাড়িঘরসহ বহু স্থাপনা। পদ্মার ভাঙনের করাল গ্রাসে এখনও হুমকির মুখে রয়েছে আরও অনেক সম্পদ। এ এলাকার বহু মানুষ ভিটেমাটি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হারিয়ে এখন নিঃস্ব। বিধ্বস্ত এই ইউনিয়নটির লোকজনের প্রধান কাজ জমিতে চাষাবাদ ও মাছ ধরা।

ভাঙনের মুখে পড়ে অনেক লোকজন ছড়িয়ে ছিটিয়ে বিভিন্ন স্থানে বসবাস করলেও ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তাদের মাঝে রয়েছে অনেক উৎসাহ-উদ্দীপনা। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ভাগ্যকূল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন মিতুল। তিনি ভাঙনে ঘরবাড়ি, বাজারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হারা মানুষগুলোর দুঃখ দুর্দশার সঙ্গে নিজেকে মিশিয়ে রেখেছেন অনেক আগে থেকেই। প্রাথমিক পর্যায়ে ভাঙনের কবল থেকে রক্ষার জন্য বাঁধ নির্মাণে তার রয়েছে অনেক অবদান।

এলাকায় রয়েছে তার ব্যাপক জনপ্রিয়তা। তিনি ভোট প্রার্থনায় প্রতিদিনই ভোটারদের কাছে ঘুরে বেড়াচ্ছেন ইউনিয়নের এক গ্রাম থেকে আরেক গ্রামে। তিনি বলেন, ঐতিহ্যবাহী এ ইউনিয়নটির মাটিতে আমার জন্ম হওয়ায় আমি নিজেকে নিয়ে গর্ব করি। আমার প্রেম ভালবাসা, ভাললাগা সবকিছুই এ ইউনিয়নটি জুড়ে। ভেঙে যাওয়া এই ভাগ্যকূল এলাকার মানুষের পাশে নিজেকে সব সময় সম্পৃক্ত রাখতে পারাটা হবে আমার জন্য সুভাগ্যের। আমি চাই সুখে দুঃখে সব সময় তাদের পাশে থেকে এলাকার উন্নয়নে নিজেকে জড়িয়ে রাখতে। মনির হোসেন মিতুল একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী।

Leave a Reply