সিরাজদিখানে পুলিশের লুন্ঠিত রাইফেল উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে নির্বাচনী সহিংসতায় পুলিশের লুন্ঠিত রাইফেল বুধবার বেলা ১২টার দিকে উদ্ধার হয়েছে। স্থানীয় সূত্র জানায়, রসুনিয়া এলাকার টানা ব্রিজের নিচে পরিত্যক্ত অবস্থায় লুন্ঠিত রাইফেলটি পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ তা উদ্ধার করে। সিরাজদিখান থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে ওই উপজেলার লতুব্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট গণনা শেষে এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকরা সেখানে হামলা চালায়। এ সময় পুলিশের রাইফেলটি লুট হয়।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

———————–

সিরাজদিখানে পুলিশের ছিনতাই হওয়া রাইফেল উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানের লতব্দি ইউনিয়নে পুলিশ ও আ’লীগ সমর্থকদের সংঘর্ষের সময় ছিনতাই হওয়া চাইনিজ রাইফেল উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বুধবার সকালে উপজেলার রশুনিয়া-লতব্দি সড়কের টানা ব্রীজের কাছে পরিত্যক্ত অবস্থায় পুলিশ এটি উদ্ধার করে। এছাড়া ভোট গননাকালে হামলা চালিয়ে ভোটবাঙ্ ছিনতাইসহ সংঘর্ষের ঘটনায় লতব্দি সরকারি প্রার্থমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামীদের নামে মামলা করেছেন। তরে এতে আসামীর সংখ্যা কত তা জানাতে পারেনি পুলিশ। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে লতব্দি এলাকায় বুধবারও পুলিশ টহল অব্যাহত রাখা হয়েছে।

সিরাজদিখান থানার ওসি মো. মাহাবুবুর রহমান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ এসল্ট ও রাইফেল ছিনতাইয়ের ঘটনায় পৃথক মামলা হবে কিনা জানতে চাইলে ওসি বলেন, মামলার সম্ভাবনা রয়েছে। এএসপি সার্কেল মো. সাইফুল ইসলাম জানান, মামলার বাদি হয়েছেন ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার। তবে তিনি তাৎক্ষণিক বাদির নাম জানাতে পারেননি।

উল্লেখ্য, সিরাজদিখনের লতব্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে আ’লীগ সমর্থিত প্রার্থী হাফেজ ফজলুর সমর্থকরা হামলা চালিয়ে ভোটবাঙ্ ছিনতাই করে। এ সময় পুলিশ ও সমর্থকদের সংঘর্ষে ৫ পুলিশ আহত হয়। পুলিশের চাইনিজ রাইফেল ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ২০ রাউন্ড গুলি ব্যবহার করে।

Leave a Reply