বাবার মুখে প্রথম যেদিন শুনেছিলাম গান…

বাবা মানে বটবৃক্ষ। আদর-শাসন আর নির্ভরতার ছায়াতল। বাবা শাশ্বত, চিরআপন, চিরন্তন। বাবার তুলনা বাবা নিজেই। বাবার দায়িত্বও অপরিসীম। । এজন্যই পৃথিবীর সব বাবার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে প্রতিবছর জুন মাসের তৃতীয় রোববার বিশ্ব জুড়ে পালন করা হয় বাবা দিবস। এই সময়ের মিউজিক ক্রেজ হাবিব এবারের ‘বাবা’ দিবসে বাংলানিউজকে বলেছেন তার বাবা ফেরদৌস ওয়াহিদ সম্পর্কে।

বাবা ফেরদৌস ওয়াহিদ সম্পর্কে বলতে গিয়ে শুরুতেই হাবিব জানিয়ে দিলেন, বাবা-ই তার সবচেয়ে কাছের বন্ধু। হাবিব বললেন, বাবার কাছ থেকে আমি আজীবন পেয়ে এসেছি প্রশ্রয়। বোঝার বয়স থেকে তিনিই আমার সবচেয়ে ভালো বন্ধু। তার সঙ্গে ছোটবেলা থেকেই সব বিষয়েই আমি কথা বলে থাকি। আমার বাবার মতো এমন একজন বন্ধু পাশে থাকলে কেউ সহজে সমস্যায় পড়বে না।

গানের জগতে আসার পেছনে বাবার অবদানের কথা জানিয়ে হাবিব বললেন, জন্মের পর বাবার কণ্ঠেই বোধহয় প্রথম গান শুনি। গান নিয়েই তো বাবার পুরো জীবন। গায়ক পিতার সন্তান হিসেবে আমার জন্ম গানের মধ্যে, গানের মধ্যেই আমার বড় হয়ে উঠা। আমার মধ্যে সঙ্গীতের প্রতি অনুরাগ বাবার কাছ থেকেই এসেছে। আমাকে সঙ্গীতজীবন বেছে নিতে তিনিই উদ্বুদ্ধ করেছেন। বাবা না থাকলে হয়তো আমার গান শেখাই হতো না। আজকে গানের জন্যই আমাকে সবাই চিনে, সবাই ভালোবাসে। বাবার জন্যই আমার এতো কিছু পাওয়া।

হাবিব একটি মজার ঘটনা উল্লেখ করে বললেন, ছাত্রজীবনে আমার ঝোঁক ছিল দেশের বাইরে গিয়ে ব্যারিস্টারি পড়ার প্রতি। যখন আমি এলএলবি পড়তে বিদেশ যাই, তখন মিটিমিটি হেসে বাবা আমাকে বলেছিলেন, তুই যত চেষ্টাই করিস না কেনো তোকে দিয়ে ব্যারিস্টারি পড়া হবে না! কারণ তোর রক্তে আছে গান। তোকে শেষ পর্যন্ত গানেই ফিরে আসতে হবে। সেই সময় বাবার কথা শুনে কষ্ট পেলেও শেষ পর্যন্ত বাবার কথাই সত্য হয়েছে। ব্যারিস্টারি দূরে থাক, এলএলবিই আমার পড়া আর হলো না। বরং বিদেশ থেকে ডিগ্রী নিয়ে এলাম সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের উপর। পরের ঘটনা তো সবারই জানা। আমি নির্দি¦ধায় বলতে পারি, বাবার কারণেই আজকে আমি এতদূর আসতে পেরেছি।

হাবিব জানালেন, এখনো গানের ব্যাপারে যে কোন সিদ্ধান্তের আগে তিনি বাবার পরামর্শ সঙ্গে পরামর্শ করে নেন। হাবিব বিশ্বাস করেন, বাবার পরামর্শ অনুসরণ করেছেন বলেছেন আজকে এইপর্যায়ে আসতে পেরেছেন। নয়তো বহু আগেই ঝরে পড়তেন।

সম্প্রতি বের হয়েছে হাবিবের নতুন একক অ্যালবাম ‘আহ্বান’। এই অ্যালবামে ছেলে হাবিবের সুর ও সঙ্গীত পরিচালনায় একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তার বাবা ফেরদৌস ওয়াহিদ। গানটির কথা উল্লেখ করে হাবিব বললেন, বাবার গাওয়া এই গানটি শুনলে সবার মনে হবে তিনি বুঝি আমার চেয়ে তরুণ। কথাটা আমি অ্যালবামের প্রকাশনা অনুষ্ঠানেও বলেছিলাম। সত্যি বলতে কি, তিনি মনেপ্রাণে এখনো তরুণ। বাবা আমার কাছে চিরসবুজ একজন মানুষ। তার এই তারুণ্য আমাকে সবসময় অনুপ্রাণিত করে।

‘বাবা দিবস’ আলাদাভাবে নির্দিষ্ট দিন পালন করার পক্ষে নয় হাবিব। তিনি বললেন, বাবা আমার প্রতিদিনের সঙ্গী। তাকে ভালোবাসি আমি প্রতিদিন, প্রতিক্ষণ। তাই আমার কাছে প্রতিটি দিনই হলো বাবা দিবস।

বাবার সঙ্গে সন্তানের সম্পর্ক কেমন হওয়া উচিত ? এ প্রশ্নের উত্তরে হাবিব বলেন, আমার মনে করি বাবা আর সন্তানের সর্ম্পকটা হওয়া উচিত বন্ধুত্বপূর্ণ ও একেবারেই স্বচ্ছ। সর্ম্পকের মধ্যে কোনোরকম মিথ্যা থাকা মোটেও উচিত নয়। বাবার সঙ্গে যে কোনো বিষয় নিঃসঙ্কোচে শেয়ার করা যায়, সম্পর্কটা এমন হওয়া উচিত। সর্ম্পকের মাঝে ভয়-ভীতি থাকলে চলবে না। এসব বিষয়ে বাবাকেই বেশি নজর দিতে হবে। বাবা হয়ে উঠতে হবে সন্তানের বন্ধু।

বিপুল হাসান
বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply