বঙ্গবন্ধু বিমানবন্দরের জন্য নতুন ৪ স্থান চিহ্নিত

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী গোলাম মোহাম্মদ কাদের জানিয়েছেন, বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণের জন্য সরকার নতুন করে ৪ টি স্থান চিহ্নিত করেছে। বুধবার জাতীয় সংসদে ২০১১-১২ অর্থ-বছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ কথা জানান। মন্ত্রী বলেন, ‘এ জায়গাগুলো হচ্ছে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান, ফরিদপুরের ভাঙ্গা, মাদারীপুরের রাজৈর ও গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘সরকার পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপের (পিপিপি) ভিত্তিতে একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে। নির্বাচিত এ জায়গাগুলোতে বিমানবন্দর নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের পর বিমানবন্দর নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

এ সময় দেশের পর্যটন খাত এখনও শক্তিশালী হয়ে ওঠেনি জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘একা কোনও মন্ত্রী বা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে পর্যটন খাতকে শক্তিশালী করা সম্ভব নয়। এজন্য সরকারের পাশাপাশি স্টেক হোল্ডারদের সহায়তা প্রয়োজন।’

এ সময় তিনি অর্থমন্ত্রীর কাছে আগামী অর্থ-বছরে পর্যটন খাতে প্রচারণার জন্য আড়াইশ’ কোটি টাকা বরাদ্দসহ পর্যটন খাতের কর রেয়াত দেওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘পর্যটকদের সুবিধার্থে সার্ক দেশগুলোর মধ্যে একতরফা ভিসা ব্যবস্থা চালু করা প্রয়োজন।’

এ সময় তিনি বিমান বাংলাদেশ লিমিটেড সম্পর্কেও কথা বলেন।তিনি বলেন, ‘বিমানের উড়োজাহাজ সঙ্কট নিরসনে ২টি নতুন বোয়িং কেনা হচ্ছে। আগামী অক্টোবর-নভেম্বর মাসের মধ্যে এগুলো দেশে এসে পৌঁছেবে।’

এর মাধ্যমে ইউরোপ-আমেরিকায় সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করা সম্ভব হবে বলে জানান তিনি।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply