সিরাজদিখানে যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের মধ্যে উত্তেজনা

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। আজ মঙ্গলবার বিকেল ৩টার দিকে যুবলীগ কর্মীরা জয়ন্ত নামের এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করার পর থেকে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। যে কোনো সময় পুনরায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে বলে স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে।

ইছাপুরা কেবি ডিগ্রি কলেজের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে সোমবার রাতে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এর জের ধরেই স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মী জয়ন্তের উপর হামলা চালায় যুবলীগ কর্মীরা। এ সময় তার ইছাপুরাস্থ দোকান ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়ে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

দলীয় সূত্র ও প্রত্যক্ষধর্শীরা জানায়, স্থানীয় ইছাপুরা কেবি ডিগ্রি কলেজের নির্বাচন নিয়ে যুবলীগ কর্মী আলী হোসেন গ্রুপের সঙ্গে স্বেচ্ছাসেবক কর্মী জয়ন্ত গ্রুপের সংঘর্ষে ২ জন আহত হয়। তার জের ধরেই আলী হোসেন গ্রুপের যুবলীগ কর্মীরা দুপুর ৩টার দিকে ইছাপুরা চৌরাস্তাস্থ জয়ন্তের দোকানে হামলা চালায়। এ সময় তারা জয়ন্তকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। সিরাজদিখান থানা পুলিশ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

Leave a Reply