সিরাজদিখানের কোলা ইউপি’র ফলাফল নিয়ে জটিলতা, মামলা দায়ের

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার কোলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ঘোষিত ফলাফল নিয়ে জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে। নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগসহ ১৫ দিন পরে ফলাফল ঘোষণা করায় তা বাতিলের দাবিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল খালেক উচ্চ আদালতে মামলা দায়ের করেছেন।

চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল খালেক জানান, গত ৩১ মে উপজেলার কোলা ইউপি নির্বাচন চলাকালে ভাই ভাই সংঘ ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসারসহ নির্বাচনে দায়িত্বপলনরত অন্য কর্মকর্তারা উক্ত ইউনিয়নের এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষ নিলে অন্য প্রার্থীর পোলিং এজেন্টরা তাতে বাধা দেয়। এ সময় উক্ত কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মাহাতাব উদ্দিন পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়। এতে কেন্দ্রের বাইরে থাকা বিভিন্ন প্রার্থীর সমর্থক ও কর্মীদের মাঝে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে কেন্দ্রে থাকা নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে উপস্থিত জনতার সংর্ঘষ হয়। এ অবস্থায় প্রিজাইডিং অফিসার ভোটগ্রহণ বন্ধ করে দিয়ে চলে যান। ওই দিন রাতেই তিনি থানায় গিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী চেয়ারম্যান ও সদস্য প্রার্থীসহ ১৮ জনের নাম ঠিকানা উল্লেখসহ ১৮শ’ জনের নামে মামলা দায়ের করেন। এ প্রেক্ষিতে কোলা ইউপি ফলাফল ঘোষণা স্থগিত হয়ে যায়। কিন্তু ঘটনার ১৫ দিন পরে ওই ফলাফল প্রকাশ করা হয়। প্রকাশিত ফলাফলে ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য আসনে প্রথমে প্রার্থী জাকিয়া বেগম হাসিনাকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। পরে একই ওয়ার্ডের অপর প্রার্থী সালমা বেগমের নামও ঘোষণা করা হয়েছে বিজয়ী হিসেবে। একই ওয়ার্ডে দু’জনকে বিজয়ী ঘোষণা করায় সদ্য সমাপ্ত কোলা ইউপি নির্বাচনের ঘোষিত ফলাফল নিয়ে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে নির্বাচনের ফলাফল বাতিলের দাবিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল খালেক উচ্চ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন। আদালত আগামী ১০ জুলাই শুনানির দিন ধার্য করেছে।

এছাড়া গত ২৭ জুন ঘটিত ১ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্তকালে কমিটির প্রধান ঢাকা বিভাগীয় উপ নির্বাচন কমিশনার বিশ্বাস লুৎফর রহমানের কাছে উপজেলার উত্তর রক্ষিত পাড়া ভাই ভাই সংঘ ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার নির্বাচনকে প্রভাবিত করার কথা স্বীকার করেছেন বলে জানা গেছে।

উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা দাউদুল আলম জানান, কেন্দ্র থেকে যাকে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছিল তিনি বিজয়ী হয়েছেন। তিনি আরো জানান, ভোট গণনার পরে রাস্তায় ব্যালট পেপার লুট হওয়ায় ফলাফল ১৫ দিন স্থগিত রাখার পর নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দেয়াল ঘড়ি প্রতীকের প্রার্থী লিয়াকত মীরকে চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়েছে।

Leave a Reply