বি. চৌধুরীর মুখদর্শন

বিকল্পধারা বাংলাদেশ-এর চেয়ারম্যান, প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর কদর বেড়েছে। রাজনৈতিক ময়দান থেকে দীর্ঘদিন নিজেকে গুটিয়ে রাখা এ নেতার ডাক পড়েছে বিএনপি’র পক্ষ থেকে। বিএনপি মান-অভিমান ঝেড়েমুছে সম্পর্কের বরফ গলাতে চাচ্ছে। বি. চৌধুরীর মান ভাঙানোর মাধ্যমে তার দলকে সরকার বিরোধী আন্দোলনে কাজে লাগানোর কৌশল নিয়েছে বিএনপি। এ দাওয়াই কাজেও লেগেছে। বিএনপি’র আহ্বানে সাড়া দিয়েছেন তিনি। বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বুধবার ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে গণঅনশন কর্মসূচিসহ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিলের বিরুদ্ধে আন্দোলন কর্মসূচির প্রতি তার দলের সমর্থন চাওয়া হয়। তিনি বিএনপি’র আবদার রক্ষা করেন এবং নৈতিক সমর্থন দিয়েছেন। বি. চৌধুরীর মান ভাঙাতে তার বারিধারার বাসায় ছুটে গিয়েছিলেন বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং মহানগর বিএনপি সভাপতি, ঢাকার মেয়র সাদেক হোসেন খোকা। প্রেসিডেন্ট পদ থেকে অকালীন বিদায়ের পর এই প্রথম তিনি কাছ থেকে বিএনপি নেতাদের মুখদর্শনের সুযোগ পেলেন। প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার পর মি. চৌধুরী সব ধরনের সম্পর্ক ছিন্ন করেন দীর্ঘ স্মৃতিবিজড়িত দলটির সঙ্গে। পরবর্তীতে বিকল্পধারা বাংলাদেশ নামে একটি রাজনৈতিক দল গঠন করেন। পিতা-পুত্রের নেতৃত্বে গড়া দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে একই মঞ্চে ওঠেন চারদলীয় সরকার বিরোধী আন্দোলনে। তিনি আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার আস্থা অর্জন করতে পারেননি। তাছাড়া দলের অনেকেই তাকে ছেড়ে গেছেন। ছেড়ে যাননি তার ছেলে মাহি বি. চৌধুরী।

শীর্ষ কাগজে

Leave a Reply