ইউপি: স্থগিত ৩৭ কেন্দ্র ও সমভোটের ৮০ পদে ভোট চলছে

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ২য় দফায়, স্থগিত ৩৭ কেন্দ্র ও সমান ভোট পাওয়া ৮০ পদে পুনরায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে ২৮ জুলাই বৃহস্পতিবার। কেবলমাত্র সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কুলঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের হাতিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছেনা। হাওর ও বন্যাপ্রবণ এলাকায় কেন্দ্র হওয়ায় প্রার্থীদের অনুরোধে কুলঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের হাতিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের কেন্দ্রে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছেনা বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার ছহুল হোসাইন।

তিনি বলেন, ‘প্রার্থীদের অনুরোধেই এ কেন্দ্রের ভোট স্থগিত রেখেছে কমিশন।’

নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, দ্বিতীয় পর্যায়ের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র দখল, ব্যালট বাক্স ও ব্যালট পেপার ছিনতাই, ফলাফল ছিঁড়ে ফেলাসহ অন্যান্য গোলযোগ এবং সহিংসতার কারণে স্থগিত রাখা ৩৩টি ইউনিয়নের ৩৭টি কেন্দ্র এবং সমান সংখক ভোটের ফাঁদে পড়া ৮০টি ইউপিতে চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত আসনের সদস্য ও সাধারণ আসনের সদস্য পদে ১৬০ প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীর মধ্যে ২৮ জুলাই আবারও ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

গত ২৪ জুলাই স্থানীয় সরকারসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারদের কাছে পাঠানো নির্বাচন কমিশনের এ সংক্রান্ত নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ওই সব কেন্দ্রে প্রিসাইডিং অফিসার হিসেবে নির্বাচন কমিশনের নিজস্ব কর্মকর্তা অর্থাৎ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তারা দায়িত্ব পালন করবেন এবং প্রতি ভোটকেন্দ্রে কমপক্ষে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিত থাকবেন।

এছাড়া কেন্দ্রগুলোতে দিনের আলোতেই ভোটগ্রহণ সম্পন্ন করতে হবে এবং ভোটগ্রহণের দিন নির্বাচনী এলাকায় বহিরাগতদের প্রবেশ ও অবস্থান নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে বলেও ইসির সিনিয়র সহকারী সচিব (পল্লি) আব্দুল বাতেন লিখিত চিঠিতে বলা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনার ছহুল হোসাইন এ বিষয়ে বুধবার বাংলানিউজকে বলেন, ‘আমরা অবাক হয়েছি ্এবার রেকর্ড সংখক ৮০টি কেন্দ্রে ভোট টাই হয়েছে। এবং অন্য কেন্দ্রগুলোতেও ফলাফল খুব কাছাকাছি হয়েছে। তাই সন্ত্রাস, সহিংসতার কারণে যেসব কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করতে হয়েছিল, সেসব কেন্দ্রে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি এড়াতে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসনকে বলা হয়েছে।’

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের তথ্য অনুযায়ী ভোটকেন্দ্রে সন্ত্রাস,সহিংসতার কারণে ৩৭টি কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ স্থগিত রাখায় ২৬টি চেয়ারম্যান পদ, ৩২টি সংরক্ষিত আসনের সদস্যপদ ও ২৮টি সাধারণ আসনের সদস্যপদের নির্বাচন অসম্পন্ন রয়ে গেছে।

অন্যদিকে সমানভোটের কারণে একটি চেয়ারম্যান পদ, পাঁচটি সংরক্ষিত আসনের সদস্যপদ ও ৭৪টি সাধারণ আসনের সদস্য পদে কেউই নির্বাচিত হতে পারেননি। দেশে সমভোট নিয়ে সমস্যা এই প্রথম। আগে প্রার্থীরা সমান ভোট পেলে লটারির মাধ্যমে তাঁদের মধ্যে একজনকে নির্বাচিত ঘোষণা করা হতো। বর্তমান নির্বাচনী আইনে ওই ব্যবস্থা বাতিল করে সমান ভোট পাওয়া প্রর্থীদের মধ্যে পুনরায় ভোটগ্রহণের বিধান রাখা হয়েছে।

যেসব কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ:
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রহিমানপুর ইউপির মথুরাপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, নীলফামারী সদর উপজেলার চাপড়া সরমাজানী ইউপির বরুয়া শেখপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়, লালমনিরহাট পাটগ্রাম উপজেলার জোংড়া ইউপির ধবলগুড়ি উচ্চ বিদ্যালয়, গাইবান্ধার গোবিন্দপুর উপজেলার রাখালবুরুজ ইউপির বিশ পুকুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার দলদলী ইউপির নাজিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার বালীঘাটা ইউপির কাঁশপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার মাড়িয়া ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের একটি ভোটকেন্দ্র, রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার রামনাথপুর ইউপির ঘোলা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়, জামালপুর সদরের শরিফপুর ইউপির ৭ নম্বর ওয়ার্ডের একটি ভোটকেন্দ্র, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার পিরোজপুর ইউপির মংগলেরগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

শরীয়তপুর সদর উপজেলার শোলপাড়া ইউপির উল্টার গ্রাম চিকদ্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার লতব্দি ইউপির লতব্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার বন্দরখোলা ইউপির ১ নম্বর ওয়ার্ডের একটি ভোটকেন্দ্র, কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার গোবরিয়া ইউপির দক্ষিণ লক্ষ্মীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং আবদুল্লাহপুর ইউপির লক্ষ্মীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

শেরপুর সদর উপজেলার চর শরপুর ইউপির সাতানীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শ্রীবরদী উপজেলার রাণীশিমুল ইউপির ভায়াডাঙ্গা কওমী মাদ্রাসা, তাঁতীহাট ইউপির লাশমারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোশাইপুর ইউপির গিলাগাছা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভেলুয়া ইউপির ভেলুয়া উচ্চ বিদ্যালয় ও ঝগড়ার চর উচ্চ বিদ্যালয়, নরসিংদীর পলাশ উপজেলার জিনারদী ইউপির ৭ নম্বর ওয়ার্ডের একটি ভোটকেন্দ্র।

শিবপুর উপজেলার জয়নগর ইউপির পাহাড় জয়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সন্ধানপুর ইউপির সত্তুরবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার হাজি আবদুল জলিল উচ্চ বিদ্যালয় এবং আশুগঞ্জ তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়, কুমিল্লার হোমনা উপজেলার চান্দেরচর ইউপির রামকৃষ্ণপুর কামাল স্মৃতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার পাঁচগাঁও ইউপির আবু তোরাবনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

ভাওর ভীমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও আফছরখিল ফোরকানিয়া মাদ্রাসা, চাঁদপুর সদর উপজেলার রাজরাজেশ্বর ইউপির রাজরাজেশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মতলব দক্ষিণ উপজেলার নায়েরগাঁও দক্ষিণ ইউপির কালিয়াশ রেজিঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়, খাদেরগাঁও ইউপির ঘিলাতলি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নারায়ণপুর হাফেজিয়া মাদ্রাসা, হাইমচর উপজেলার নীলকমল ইউপির ২ নম্বর উত্তর চরকোড়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কচুয়া উপজেলার পাথৈর ইউপির বাতি ছিনাইয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোহট (দক্ষিণ) ইউপির চাপাতলি সিনিয়ার মাদ্রাসা এবং সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কুলঞ্জ ইউপির হাতিয়া উচ্চ বিদ্যালয়।

সমভোটের জন্য যে কেন্দ্রে নির্বাচন:

সমভোটের কারণে আবারও চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রার্থীর মধ্যে নির্বাচন হবে সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার সিংচাপইড় ইউপিতে। এর আগে গত ৬ জুন এ ইউপিতে নির্বাচন হয়। ইউপির ভোটার সংখ্যা ১১ হাজার ৮৫৬। এ ছাড়া সমভোটের কারণে সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার সুখাইর রাজাপুর দক্ষিণ ইউপির ১ নম্বর, হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার মুরাদপুর ইউপির ১ নম্বর ও মাধবপুর উপজেলার ছাতিয়াইন ইউপির ৩ নম্বর, কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার গগুরুই ইউপির ২ নম্বর এবং দিনাজপুর সদর উপজেলার কমরপুর ইউপির ২ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডে সমান ভোট পাওয়া প্রার্থীদের মধ্যে আবারও নির্বাচন হবে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply