বেতনহীন মুন্সীগঞ্জের বেসরকারী শিক্ষকরা

ঈদ-উল-ফিতরকে সামনে রেখে মুন্সীগঞ্জের বেসরকারী স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষকরা আগস্ট মাসের ৫ দিন গত হওার পরও বেতন পাওয়ায় কোন খবর না পেয়ে চরম হতাশায় ভুগছেন। জুন মাসের বেতনও তারা পায়নি। জুন ও জুলাই দু’মাসের বেতন না পেয়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে বিপাকে পড়েছেন শিক্ষকরা। স্বল্প আয়ের এসকল শিক্ষক নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের উর্ধ্বগতি এবং বিগত প্রায় ২ মাস যাবৎ বেতন না পেয়ে সংসারের দৈনন্দিন খরচ মেটাতে না পেরে চোখে শর্ষে ফুল দেখছেন।

অসহায় শিক্ষকরা বেতন পাওয়ার আশায় প্রতিদিন ব্যাংক গুলোতে ভীড় করলেও কর্তৃপক্ষ বেতন ছাড় করণের খবর না পাওয়ায় বিলই রাখছেন না। এমতাবস্থায় শিক্ষকরা বুক ভরা হতাশা নিয়ে বাড়ী ফিরতে বাধ্য হচ্ছেন। এতে করে প্রায় অভুক্ত হতভাগ্য শিক্ষকরা দুশিচিন্তা নিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কাজেও মনোযােগী হতে পারছেন না।

উল্লেখ্য, প্রতি মাসের ১০ তারিখের মধ্যে পূর্ববর্তি মাসের বেতন দেয়ার কথা থাকলেও বর্তমান সরকারের আমলে প্রায় প্রতি মাসের বেতন যথা সময়ে না পাওয়ায় শিক্ষকরা হতাশ ও ক্ষুগ্ধ হয়ে উঠছে।

বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির মহাসচিব ও মুন্সীগঞ্জ জেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর খান বলেন, শিক্ষকদের পেটে ক্ষুধা রেখে আর যাই হ্কো ভাল শিক্ষা আশা করা যায় না। তিনি অনতিবিলম্বে বেতন ছাড়করণে সরকারকে পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানান।

বাংলাটাইমস টুয়েন্টিফোর ডটকম

Leave a Reply