সিরাজদিখানে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানের রামেরখোলা নামক স্থান থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় অজ্ঞাত (৩০) এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে পুলিশ এ লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। গত ২৪ জুলাই একই স্থান থেকে একই কায়দায় গুলি করে হত্যা করা অপর এক অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার করেছিল পুলিশ।

পুলিশ জানায়, স্থানীয় এলাকাবাসীর কাছে থেকে খবর পেয়ে উপজেলার রামেরখোলা নামকস্থান থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তাকে গুলি করে হত্যার আলামত পাওয়া গেছে। কে বা কারা এবং কি কারণে ওই যুবককে হত্যা করা হয়েছে তা সনাক্ত করা যায়নি। নিহতের পরিচয়ও কেউ জানাতে পারেনি। অন্য কোথাও হত্যার পর লাশ এখানে ফেলে রেখে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। পুলিশ সূত্র আরো জানায়, গত ২৪ জুলাই একই স্থান থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় অজ্ঞাত আরেক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছিল। আজ শুক্রবার উদ্ধার করা যুবকের লাশ একই স্থান থেকে উদ্ধার করা হয় এবং একই কায়দায় এই যুবককেও গুলি করে হত্যার আলামত পাওয়া গেছে। তাই ধারনা করা হচ্ছে, দুটি হত্যাকান্ডই একই খুনীরা সংঘটিত করে লাশ এখানে ফেলে রেখে গেছে।

সিরাজদিখান থানার ওসি মো. মাহাবুবুর রহমান জানান, এ ঘটনায় মামলা রুজু হয়েছে। হত্যার ঘটনার ক্লু উদঘাটনের চেষ্টা চলছে।

শীর্ষ নিউজ
—————————–

সিরাজদিখানে গুলিবিদ্ধ যুবকের লাশ উদ্ধার

মোহাম্মদ সেলিম, মুন্সীগঞ্জ থেকে : মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার রামেরখোলা নামক স্থানে গুলিবিদ্ধ এক যুবকের (৩০) লাশ শুক্রবার বিকালে পুলিশ উদ্ধার করেছে। ফুল প্যান্ট ও কালো রংয়ের টিশার্ট পরিহিত যুবকের মাথায় দু’টি গুলিবদ্ধ রয়েছে। গামছা দিয়ে দু’ চোখ এবং পেছন থেকে দু’ হাত বাধা ছিল।

ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের পাশের এই একই স্থানে গত ২২ জুলাই হিন্দু এক যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়। সিরাজদিখান থানাও ওসি মাহবুবুর রহমান এসব তথ্য দিয়ে জানান, ধারনা করা হচ্ছে ভোর রাতে পেশাদারী খুনীরা অন্য কোথাও হত্যা করে লাশ এখানে ফেলে গেছে। ২২ জুলাই এখানে উদ্ধারকৃত লাশটির এখনও সনাক্ত হয়নি, গুপ্ত হত্যায় গ্রেফতারও হয়নি কেউ। ঘন ঘন গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারের ঘটনায় এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

মুন্সিগঞ্জ নিউজ

Leave a Reply