নাব্য সঙ্কট ॥ যে কোন সময় ফেরি চলাচল বন্ধের আশঙ্কা

মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুট
ঈদকে সামনে রেখে মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরম্নটে ফেরি চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। নাব্য সঙ্কট ও ডুবো চরের কারণে চ্যানেলে পানি স্বল্পতার ফেরিগুলো চলাচল করছে বিপজ্জনকভাবে। এই রম্নটের একটি চ্যানেলে ইতোমধ্যে দ্বিমুখী ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। জরম্নরী বার্তা পাঠানোর পরেও চ্যানেলে ড্রেজিং না করায় ডুবো চরের কারণে যে কোন সময় এ নৌরম্নটে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যেতে পারে। ঈদের আগে দক্ষিণ বঙ্গের ঘরমুখো যাত্রীদের এখানে চরম বিড়ম্বনার আশঙ্কা করা হচ্ছে। শুক্রবার সকালেও দক্ষিণাঞ্চলের ২৩ জেলার প্রবেশদ্বার মাওয়ায় এক কিলোমিটার দীর্ঘ যানজট দেখা যায়।

জানা গেছে, মওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরম্নটে বর্তমানে মাওয়া-লৌহজং-মাগুড়খ–নাওডুবা-হাজরা-চরজানাজাত চ্যানেল দিয়ে ফেরিগুলো চলাচল করছে। উজান থেকে নেমে আসা ঢলের পানির সঙ্গে পলি পড়ে মাগুড়খ- চ্যানেলে ফেরি চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। পলি জমে ডুবো চরের সৃষ্টি হওয়ায় ওই চ্যানেলের মধ্য দিয়ে দুটি ফেরি পাশাপাশি চলাচল করতে না পারায় ইতোমধ্যেই ওই চ্যানেল দিয়ে পাশাপাশি ফেরি চলাচল বা ডাবলওয়ে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ভরা এই বর্ষা মৌসুমে পলির মাত্রা বৃদ্ধি পেয়ে প্রতিদিনই ডুবো চরের আকার বড় হয়ে সরম্ন হয়ে চাচ্ছে চ্যানেলটি।

ফলে চ্যানেলটি দিয়ে এখন ওয়ানওয়ে বা একমুখী রাসত্মায়ও ডাম্প বা টানা ফেরিও চলাচলে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হচ্ছে। এভাবে পলির মাত্রা অব্যাহত থাকলে ঈদের আগে এ চ্যানেলে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যেতে পারে। বিআইডবিস্নউটিসি ও মাওয়া ফেরি সার্ভিস কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যে বিষয়টি অবহিত করে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানালেও এখনও ড্রেজিংয়ের কোন ব্যবস্থা না করায় ঈদে দক্ষিণ বঙ্গের ঘরমুখো যাত্রীদের এখানে মহাবিড়ম্বনার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

জনকন্ঠ

Leave a Reply