টঙ্গীবাড়িতে তিন ভক্তসহ স্বঘোষিত মহিলা পীর জেল হাজতে

মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়িতে যশলং ইউনিয়নের হাটকান গ্রামে আধ্যাত্মিক কবর সাধনার ঘটনায় পুলিশ শুক্রবার রাতে কবরে সিজদারত অবস্থায় স্বঘোষিত এক মহিলা পীরসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে। শনিবার টঙ্গীবাড়ি থানায় অনৈসলামিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। শনিবার গ্রেফতারকৃত কথিত মহিলা পীর নাজমা বেগম (৩২) তার ছেলে নাজমুল (১২), ভক্ত শারমিন আক্তার রূপা (২০) ও নাসরিন বেগমকে (২৮) মুন্সিগঞ্জের আদালতে পাঠানো হলে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়। পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, বসতঘরের ভেতর সাড়ে ৩ হাত দূরে কবর খুঁড়ে তার ভেতর সিজদারত হন নাজমা বেগম। আর কবরের চারপাশে বসে ৩ ভক্ত কোরান শরিফ তেলাওয়াতে মগ্ন হন।

এদিকে শুক্রবার রাত ১২টার দিকে টঙ্গীবাড়ি উপজেলার ইউএনও মো. ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ তার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে নাজমা বেগমকে কবর থেকে তুলে তার ছেলে ও ভক্তদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত নাজমা বেগম সাংবাদিকদের জানান, তিনি হাটকান গ্রামের প্রবাসী রুহুল আমিনের স্ত্রী। তিনি নিজেকে খাজা মাইনুদ্দিন চিশতির মেয়ে বলে দাবি করেন।

ইত্তেফাক

Leave a Reply