যৌন হয়রানীকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে বিশাল মানববন্ধন

মোহাম্মদ সেলিম, মুন্সীগঞ্জ থেকে : মুন্সীগঞ্জ শহরের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে সোমবার যৌন হয়রানীকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে বিশাল মানববন্ধণ হয়েছে। এতে ছাত্র, শিক্ষক, অভিভাবক, রাজনীতিকব্যক্তিবর্গসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার অর্ধসহস্রাধিক লোক অংশ নেয়। তারা সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ঘন্টাধিকাল হাতে হাত ধরে বিভিন্ন স্লোগান লেখা প্ল্যাকার্ড, ফেস্টুন ও ব্যানার নিয়ে নিরবে দাঁড়িয়ে থাকে। এসব স্লোগানের মধ্যে ছিল- “সন্ত্রাসীদের ভাই নাই” , “ইভটিজার দেশ ও জাতির শত্রু” , “ইভটিজিংয়ে বাধাদানকারী কাউন্সিলরের উপর হামলাকারীদের ফাঁসি চাই”।

মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. আরমান গাজীর উপর হামলাকারী ইভটিজারদের গ্রেফতারের দাবী শহরবাসীর ব্যানারে এই মানববন্ধণের আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধকারী স্কুল ম্যানেজিং কমিটির কর্মকর্তা শাহজাহান গাজী জানান, গত বুধবার শহরের দেওভোগ অনিবার্ণ স্কুলের সামনে ফয়সাল, মামুন ও মিলন নামের তিন ইভটিজিার এই জনপ্রতিনিধিকে নির্মমভাবে প্রহার ও ছুরিকাঘাত করে। এই ঘটনায় মামলা হলেও এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি। বরং ইভটিজিারা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়িয়ে নানা হুমকি দিচ্ছে। এতে অনেক ছাত্রী আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে।

ঘটনার পরই গ্রেফতারেরর চেষ্টা চলছে, কিন্তু আসামীদের পুলিশ খুঁজে পাচ্ছে না উল্লেখ করে সদর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, প্রায় সাড়ে তিন মাস আগে এই তিন যুবক শহরের রনছ রুহিত পুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এক স্কুল ছাত্রীকে গলায় ছোরা ধরে যৌন হয়রানির সময় হাতেনাতে আটক করে জনগণের সহয়তায় এই কাউন্সিলর পুলিশকে খবর দেয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত এসে তিন ইভটিজারকেই তিন মাস করে কারাদন্ড দিয়ে জেল হাজতে পাঠায়। তিন মাস কারাবাস করে দু’ সপ্তাহ আগে তারা মুক্তি পায়।

মুন্সিগঞ্জ নিউজ

Leave a Reply