মেয়াদের পর দেড় বছরেও শেষ হয়নি সেতুর কাজ

শ্রীনগর-মুন্সীগঞ্জ সড়ক
শ্রীনগর-মুন্সীগঞ্জ সড়কের ৭২ মিটার দীর্ঘ কলি্লগাঁও সেতুর কাজ অর্ধেক শেষ হওয়ার পর দেড় বছর ধরে তা থেমে আছে। বর্ষার পানিতে বিকল্প বেইলি সেতুর একাংশের অ্যাপ্রোচ পানিতে ডুবে যাওয়ায় এ রাস্তায় যানবাহন চলাচল প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। স্বাভাবিক বর্ষাতেই পথচারীদের হাঁটুপানি ভেঙে চলতে হচ্ছে। সেতুর মুখে বড় বড় গর্তের কারণে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা।

জেলা শহর ও সিরাজদিখান উপজেলার সঙ্গে শ্রীনগর উপজেলা এবং ঢাকা দোহারের লোকজনের সহজ যোগাযোগের একমাত্র রাস্তা এটি। কলি্লগাঁও গ্রামের বৃদ্ধ মোবারক আলী বলেন, ‘কী আর কমু, ব্রিজ ভালো কইরা বানাইয়া দিব কইয়া অহন আর কামই করে না। আমরা তো যা একটু যাইতে পারি। পোলাপান স্কুলে যাইতে পারে না।’ সিএনজি-অটোরিকশা চালক শাহজাহান বলেন, ‘ব্রিজ ভালো থাকতে প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ ট্রিপ দিতে পারতাম। এখন অনেক রাস্তা ঘুরে জেলা শহরে যেতে হয়। ২ থেকে ৩ টির বেশি ট্রিপ দিতে পারি না।’

সড়ক ও জনপথ বিভাগ জানিয়েছে, শ্রীনগর-মুন্সীগঞ্জ সড়কের শ্রীনগর থেকে পঞ্চম কিলোমিটারে কলি্লগাঁও নামক স্থানে ৭২ মিটার দীর্ঘ এ সেতুটি পাকাকরণের কাজ শুরু হয় গত বছরের মার্চ মাসে। কিন্তু প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় গত বছরের জুন মাস থেকে কাজ মাঝ পথে বন্ধ হয়ে আছে। সেতুটির বিকল্প হিসেবে একটি বেইলি ব্রিজ নির্মাণ করা হলেও এর অ্যাপ্রোচ নিচু হওয়ায় পানিতে তলিয়ে গেছে। সূত্র জানায়, ২ কোটি ৬০ লাখ টাকার এ প্রকল্পের ১ কোটি ২২ লাখ টাকাই তুলে নিয়েছে ঠিকাদার। এখন বাকি রয়েছে ৮২ লাখ টাকার কাজ। এজন্য নতুন করে টেন্ডার করতে হবে।

সংবাদ

Leave a Reply