মুন্সীগঞ্জে নেশার গ্রাম দক্ষিণ ইসলামপুর

মোহাম্মদ সেলিম, মুন্সীগঞ্জ থেকে : মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার নেশার গ্রাম দক্ষিণ ইসলামপুর। এ গ্রামে শতাধিক লোক মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। দলবেঁধে এখানে মাদক আসক্তলোকেরা আসা যাওয়া করে প্রতিদিন। বিকেল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এখানে মাদক আসক্ত লোকদের আনাগোনা সবচেয়ে বেশি থাকে। অনেকেই আবার বাইক করে আসেন এখানে মাদক নিতে। কেউ কেউ আবার রিক্সায় করেও আসেন। হাত বাড়ালেই ইয়াবা থেকে সব রকমের মাদক এখানে সহজে পাওয়া যায়। মাদক সেবনকারী ও ব্যাবসায়ীদের কাছে ইয়াবা সবচেয়ে প্রিয়। কারণ এটি বহন করতে সুবিধা। মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে পুলিশ নানা সুবিধা পায় বলে এখানে এই ব্যবসা জম জমাট হয়ে উঠেছে। চাঁনমিয়া হাজির বাড়ি থেকে দক্ষিন ইসলামপুর মসজিদ পর্যন্ত আগত মাদক সেবনকারীদের সবচেয়ে বেশি ভিড় লক্ষ্য করা যায়। এ ব্যবসায় কম পরিশ্রমে লাভ বেশি থাকায় মহিলা ও শিশুসহ অনেকে এ ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ছে। বড় পয়সা ওলারাএ খাতে নগদ অর্থ বিনিয়োগ করছেন। রাজনৈতিক নেতা ও পুলিশ ম্যানেজ করায় এ ব্যবসা এখন ফুলে ফেপে উঠেছে।

এরশাদ সরকারের সময় আ: রশিদ নামের এক লোক এখানে প্রথম মাদক ব্যবসার উৎপত্তি ঘটান। তবে পরে সে এ ব্যবসা থেকে সড়ে যান। কিন্তু অন্যরা এ ব্যবসার হাল ধরে রাখেন। মাদক ব্যবসার ব্যাপক প্রভাবের কারণে এখানকার জন প্রতিনিধিরাও এ ব্যবসা প্রতিরোধে কোন কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারছেনা। বর্তমান জন প্রতিনিধিকে মাদক ব্যবসায়ীরা কোন ভাবে পাত্তা দিচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। এ গ্রামের লোক জন মারামারির ঘটনাসহ জন প্রতিনিধিকে এড়িয়ে থানা মুখী চলে যাচ্ছে।

মুন্সিগঞ্জ নিউজ

Leave a Reply