আবারো বেফাঁস কথা, জাপানের বাণিজ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

রাহমান মনি
বেশিদিন আগের কথা নয়, মাত্র ১০ মাস আগে প্রধানমন্ত্রী নাওতো কান প্রশাসনের আইনমন্ত্রী মিনোরু (Minoru Yanagida) ইয়ানাগিদা একটি বেফাঁস কথা বলে অবশেষে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছিলেন। ১৪ নভেম্বর ২০১০ সালে নিজ এলাকায় এক দলীয় সভায় কর্মীদের উদ্দেশে রাজনৈতিক বক্তব্যে ইয়ানাগিদা বলেছিলেন আমি যদি শুধু দুইটি প্রবাদ মনে রাখি তাহলে আইনমন্ত্রী হিসেবে আমার দায়িত্ব পালনটা খুবই সহজ হয়ে যায়। পার্লামেন্টে যে কোনো কঠিন প্রশ্নের উত্তরে আটকে গেলে সহজেই আমি তার জবাব দিতে পারি। প্রবাদ ২টি হলো ‘আমি এ বিষয়ে এখন কোন ধরনের মন্তব্য থেকে বিরত থাকব এবং আমরা প্রমাণ সাপেক্ষে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব’ আর এই কথার জন্য ১৭ নভেম্বর পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষে ক্ষমা প্রার্থনার পরও মন্ত্রিসভা থেকে বিদায় নিতে হয় ইয়ানাগিদাকে।

তারই দশ মাস পর গত ১০ সেপ্টেম্বর ২০১১ প্রধানমন্ত্রী নোদা প্রশাসনের বাণিজ্যমন্ত্রী ইয়োশিও হাচিরো বেফাঁস কথার জন্য পদত্যাগে বাধ্য হন। মন্ত্রিসভায় নিযুক্তি পাওয়ার মাত্র ৯ দিনের মাথায় হাচিরো পদত্যাগ করেন। ২ সেপ্টেম্বর নতুন প্রধানমন্ত্রী হাচিরোকে তার মন্ত্রিসভায় বাণিজ্যমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন। ৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী নোদা নবনিযুক্ত মন্ত্রিপরিষদ নিয়ে ১১ মার্চ ভূমিকম্পের ফলে সৃষ্ট সুনামিতে বিপর্যস্ত এলাকা ফুকুশিমা পরিদর্শনে যান। পরিদর্শন শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে হাচিরো বলেন, দুঃখের সঙ্গে বলতে হয়, এর (ফুফুশিমার) চারপাশের শহর, নগর ও গ্রামগুলো যেন একটা মৃত্যুর শহর। এখানে কোনো প্রাণ চোখে পড়ে না। আসার পথেও কোনো প্রাণী রাস্তাঘাটে বা আশপাশে চোখে পড়েনি। আর এ একটি মাত্র বক্তব্যের জন্য নোদা প্রশাসন বিরোধী দলের ব্যাপক সমালোচনার মধ্যে পড়ে। বিরোধী দলের সমালোচনার মুখে প্রধানমন্ত্রী নোদা শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী ইয়োশিও হাচিরোকে ভর্ৎসনা করেন এবং ক্ষমা চাইতে বলেন। পরে অপর এক সংবাদ সম্মেলনে হাচিরো ক্ষমা চেয়ে বলেন, আমি সত্যিই খুব দুঃখিত, আমি শহর দূষণমুক্ত করার উপর বেশি জোর দিতে গিয়ে এবং লোকজনকে দ্রুত ঘরে ফিরে আসার জন্য অমন মন্তব্য করেছিলাম। এ জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী। কিন্তু তাতেও বিরোধী দল তাদের দাবি থেকে পিছপা না হলে প্রধানমন্ত্রী নোদা তাকে পদত্যাগের পরামর্শ দিলে ১০ সেপ্টেম্বর শনিবার হাচিরো পদত্যাগপত্র জমা দেন।

কান প্রশাসনের চীফ কেবিনেট সেক্রেটারি ইয়ুকিও এদানোকে বাণিজমন্ত্রী নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তিনি জনপ্রিয়, সৎ এবং কর্মঠ হিসেবে সুখ্যাতি অর্জন করেছেন ইতোমধ্যে।

rahamanmoni@gmail.com

সাপ্তাহিক

Leave a Reply