মাঝিকে মৃত ভেবে চরে ফেলে দিয়ে ট্রলার লুট

মোহাম্মদ সেলিম, মুন্সীগঞ্জ থেকে : মুন্সীগঞ্জে মাঝিকে মৃত ভেবে চরে ফেলে দিয়ে ট্রলার লুট করে নিয়েগেছে দুবৃত্তরা। ট্রলারটির মাঝি মালিক বোরহানউদ্দিন মিলকি (৫৫) রবিবার মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবে এসে সেই মৃত প্রায় অবস্থা থেকে ফিরে আসার কাহিনী বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। শাস্তি দাবী করেন ডাকাতদের। টঙ্গীবাড়ি উপজেলার উত্তর বেতকা গ্রামে বাড়ির পাশে ধলেশ্বরী নদীতে ট্রলারে ঘুমিয়ে ছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার রাত ২টার দিকে জনের একদল ডাকাত এসে চোখ, মুখ, হাত ও পা বেধে ফেলে। চিৎকার দেয়ার তাকে পেটাতে থাকে। মারা গেছেন ভেবে হাত পা বাধা অবস্থায় তাকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরের মীরগঞ্জচরের ধইঞ্চা ক্ষেতের ভেতরে ফেলে যায় রাত ৩টার দিকে। সেখান থেকে লোকজন উদ্ধার করে তার বাড়িতে খবর দেয়। তবে ট্রলারটি পাওয়া যায়নি। এই পাঁচ ডাকাতের মধ্যে দু’জন তার আত্মীয় হেলাল ও ছানাউল্লাহকে চিনে ফেলেন। আর আগেও দু’দফা তার আরও দু’টি ট্রলার নদীঘাট থেকে চুরি যায়। তাই নিজের ট্রলারেই রাত কাটাচ্ছিলেন। কিন্তু এতেও শেষ রক্ষা হয়নি। বাকী দু’টি ট্রলারও এই ডাকাতরাই লুট করেছে বলে তার ধারণা। এ ব্যাপারে টঙ্গীবাড়ি থানায় মামলা হয়েছে। এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি। এর আগের ঘটনাগুলোতে থানায় জিডি হয়েছে।

চুরি যাওয়া প্রথম ট্রলারটির মূল্য প্রায় ১০ লাখ টাকা, দ্বিতীয়টির মূল্য চার লাখ টাকা এবং সর্বশেষ লুট করার ট্রলারের মূল্য প্রায় আড়াই লাখ টাকা। নিজের পেশা টিকিয়ে রাখবে ঋণ করে এই ট্রলারটি করেছিলেন তিনি। এখন কি করে তার জীবন সংসার চলবে তাই ভেবে দিশেহারা বোরহানউদ্দিন মিলকি। টঙ্গীবাড়ি থানার দারোগা মো. সিদ্দিক জানান, তদন্তপূর্বক এব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মুন্সিগঞ্জ নিউজ

Leave a Reply