একজন নোবেলবিজয়ী পদ্মাসেতুর বিরুদ্ধে লবিং করছেন

বর্তমানের সরকারের আমলেই পদ্মাসেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় সংসদ ভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের ত্রয়োদশ বৈঠকে জোর দিয়ে তিনি একথা বলেন।

তবে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, পদ্মাসেতুর বিরুদ্ধে একজন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী আন্তর্জাতিক মহলে জোর লবি চালাচ্ছেন।

বৈঠকে উপস্থিত একাধিক সংসদ সদস্য বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ সরকারের আমলেই পদ্মাসেতুর নির্মাণ শুরু

নাম প্রকাশ না করার শর্তে তারা জানান, প্রধানমন্ত্রী বৈঠকে বলেছেন, পদ্মা সেতুর কাজ যাতে না হয় সেজন্য একজন নোবেল লরিয়েট লবিং করছেন।

বৈঠক সূত্রে আরও জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন-পদ্মা সেতুর দুর্নীতির সাথে কেউ জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে তাকে বরখাস্ত করা হবে।

বৈঠকের পর আওয়ামী লীগের প্রবীণ সাংসদ তোফায়েল আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘বৈঠকে সংসদ সদস্যরা পদ্মাসেতুর নির্মানকাজে দুর্নীতির বিষয়ে কথা বলেন। এসময় প্রধানমন্ত্রী সকলকে আশ্বস্ত করে বলেন, `বর্তমান সরকারের আমলেই পদ্মাসেতুর নির্মাণকাজ শুরু হবে। কেউ দুর্নীতি করলে তাকে সরিয়ে দেওয়া হবে।’

চিফ হুইপ আব্দুস শহীদ বলেন, ‘পদ্মাসেতুর দুর্নীতি নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে। এবিষয়ে প্রধানমন্ত্রী আমাদের আশ্বস্ত করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘পদ্মাসেতুর টেন্ডারও এখনোও হয়নি। এখানে কিভাবে দুর্নীতি হবে। বিশ্বব্যাংক যে অভিযোগ করেছে তা সুনির্দিষ্ট নয়।’

শহীদ বলেন, ‘পদ্মাসেতুসহ বিভিন্ন বিষয়ে মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিরোধী দল বিভ্রান্তি তৈরি করছে। এসব বক্তব্যের জবাব দিতে সংসদ নেতা এমপিদের নির্দেশনা দিয়েছেন।’

এদিকে, বৈঠকে উপস্থিত একাধিক সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, বর্তমান সময়ে পদ্মাসেতুর দুর্নীতি এবং যোগাযোগ মন্ত্রী আবুল হোসেনের বিষয়ে সংসদ সদস্যরাও কথা বলেন।

দুর্নীতির প্রমাণ পেলে…
প্রধানমন্ত্রী সবাইকে উদ্দেশ্য করে বলেন,`পদ্মাসেতুর দুর্নীতি প্রমাণিত নয়। দুর্নীতির প্রমাণ পেলে আমি নিজেই তাকে বরখাস্ত করবো।`

বৈঠকে শেয়ারবাজার এবং পদ্মাসেতু নিয়ে কথা না বলে খালেদা জিয়ার বক্তব্যের জবাব দিতে প্রধানমন্ত্রী সকল এমপিকে নির্দেশ দিয়েছেন বলে সভা সূত্র জানায়।

সভা সূত্রে জানা গেছে, খালেদা জিয়া যেসব এলাকার দিয়ে রোডমার্চ করেছেন সেই এলাকার সংসদ সদস্যদের কাছে পরিস্থিতি জানতে চান সংসদ নেতা।

যুদ্ধাপরাধীদের সপক্ষে খালেদা জিয়া সরাসরি অবস্থান নিয়েছেন-এমন কথা বৈঠকে উঠে এলে প্রধানমন্ত্রী সকলকে সংসদের ভেতরে ও বাইরে খালেদা জিয়ার কথার জবাব দিতে বলেছেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply