স্ব-উদ্যোগে তৈরি হলো সাঁকো

মুন্সীগঞ্জের চরকিশোরগঞ্জে কালীদাস নদীর ওপর ব্রিজ নির্মাণে জনপ্রতিনিধিদের আশ্বাস চার দশকেও পূর্ণ হয়নি। ফলে স্থানীয় জনগণ উদ্যোগী হয়েই যাতায়াতে সুবিধার্থে নির্মাণ করে একটি বড় আকারের সাঁকো। নদী পারাপারের অসুবিধা সাময়িক দূর হলেও গ্রামবাসী চায় স্থায়ী সমাধান।

মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ভিতরে অবস্থান হলেও সবদিক থেকেই পিছিয়ে চরকিশোরগঞ্জ গ্রামটি। যেন আলোর নিচেই অন্ধকার। পনেরশ’ ভোটারের এই জনপদে সবচেয়ে বড় সমস্যাটি ছিল যাতায়াত ব্যবস্থা। শহরের খুব কাছে হলেও নৌকা দিয়ে পারাপার হতে হতো। একটু রাত হলেই সব ধরনের চলাচল বন্ধ। রোগী বা জরুরি প্রয়োজনে সবাই ছিলেন অনেকটা অবরুদ্ধ। এছাড়া স্কুল পড়ুয়া ছোট ছেলেমেয়েদের শহরের স্কুলে যেতে ভীষণ সমস্যা হতো।

স্কুল পড়ুয়া কয়েকজন ছাত্রী জানায়, সাঁকো হওয়াতে আমাদের কষ্ট অনেকটা কমেছে। নৌকা পারাপারে আমাদের সমস্যা নিত্যদিনের। অনেকেই স্কুলে যেতে দেরি হতো। কেউ কেউ পানিতে পড়ে যেতো। ব্যথা পেত।

স্থানীয় গ্রামবাসী মির্জা জানান, এলাকার ছেলে মেয়েরা যারা শহরের স্কুলে পড়াশোনা করে তাদের নৌকায় পারাপার খুবই সমস্যা ছিল। অনেকেই নৌকা থেকে পড়ে ব্যথা পেয়েছে। অনেকে ঠিকমতো পরীক্ষায় যেতে পারেনি। সাঁকোটি হওয়াতে গ্রামবাসীর অনেক উপকার হয়েছে।

এ ব্যাপারে সাবেক কমিশনার সুলতান বেপারী জানান, আমরা দীর্ঘ চার দশক ধরে একটি ব্রিজের জন্য বিভিন্ন জনের কাছে ধরনা দিয়েছি। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। রাতের বেলা মুমূর্ষ রোগী পারাপারে অনেক সমস্যা হতো। নৌকা না পেয়ে অনেকদূর ঘুরে শহরে যেতে হতো। অনেক সময় রোগী মারা গেছে। বর্তমানে সাঁকো হওয়াতে এ অসুবিধা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।
নদীর জল অনেকদূর গড়ালেও শুধুই আশ্বাস ছাড়া এখনো দেখা মেলেনি ব্রিজ নির্মাণের। অবশেষে গ্রামবাসী উদ্যোগী হয়েই সাঁকো তৈরি করে। যা কিছুটা স্বস্থি নিয়ে এসেছে চরকিশোরগঞ্জে।

সাঁকো নির্মাণের মূল উদ্যোক্তা লাডুম শাহের ভক্ত মুরিদান মুক্তিযোদ্ধা আবুবকর সিদ্দিক বাবুল বার্তা ২৪ ডটনেট-কে জানান, চরকিশোরগঞ্জে লাডুম শাহের একটা দরবার শরীফ আছে। দূর-দুরান্তের ভক্ত আশেকানরা এখানে আসেন। তিনি আরো জানান, আমাদের মনে হলো-পাঁচ হাজার লোকের বসবাস এই গ্রামটিকে অনেককিছুর অভাব রয়েছে। অনেক নাগরিক সুবিধা থেকে তারা বঞ্চিত। সবচেয়ে বড় সমস্যা যাতায়াত। ইতিমধ্যে অনেক মন্ত্রী-এমপি ও আওয়ামী লীগের নেতারা কালীদাস নদীর উপর ব্রিজ নির্মাণের আশ্বাস দিলেও তারা তা পূরণ করেনি। তাই আমরা লাডুম শাহের ভক্ত আশেকানরা গ্রামবাসীর কথা ভেবে বৃহৎ আকারের সাঁকো নির্মাণের উদ্যোগ নেই এবং সেটি নির্মাণ করি। পরে গ্রামবাসী আমাদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসেন।
কালীদাস নদীর ওপর ব্রিজ নির্মাণ করে চরকিশোরগঞ্জবাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা পূরণে সরকার কার্যকর ব্যবস্থা নিবে-এ চাওয়া গ্রামবাসীর।

বার্তা২৪ ডটনেট

Leave a Reply