ছয়টি জাহাজ নির্মাণ করবে এনইএসএল

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া থেকে: ছয়টি জাহাজ নির্মাণের কার্যক্রম হাতে নিয়েছে দেশীয় জাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নারায়ণগঞ্জ ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড শিপ বিল্ডার্স লিমিটেড (এনইএসএল)। এর মধ্যে চারটি জাহাজ (ওয়েল ট্যাঙ্কার) নির্মাণের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে বৃহস্পতিবার।

বাকি জাহাজ দুটির নির্মাণ কাজও শিগগিরই শুরু হবে বলে কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে।

এছাড়া এর আগে এ প্রতিষ্ঠানের নির্মাণ করা একটি জাহাজ আজ ক্রেতা প্রতিষ্ঠানের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে মেঘনা নদীর তীরে নারায়ণগঞ্জ শিপইয়ার্ডে বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এমভি প্রাইড অব আমানত শাহ নামের ওই জাহাজ হস্তান্তর উপলক্ষে একটি চুক্তি সই হয়। এনইএসএলের পক্ষে চুক্তিতে সই করেন প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান মো. সাইফুল ইসলাম এবং ক্রেতা প্রতিষ্ঠান প্রাইড নেভিগেশনের পক্ষে সই করেন কোম্পানির ম্যানেজিং পার্টনার নজরুল ইসলাম।

হস্তান্তর করা জাহাজটি একটি কার্গো ভেসেল। এটি ১৫০০ মেট্রিকটন ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন।

চুক্তি সই অনুষ্ঠান শেষে মধ্যাহ্নভোজ সভার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মার্কেন্টাইল মেরিন ডিপার্টমেন্টের প্রিন্সিপাল অফিসার ক্যাপ্টেন হাবিবুর রহমান।

বিশেষ অতিথি ছিলেন এনইএসএলের এমডি শাহ আব্দুল লতিফ। প্রাইড নেভিগেশন লি. এর চেয়ারম্যান ডা. এজাজুর রহমান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ক্যাপ্টেন হাবিবুর রহমান বলেন, ‘আমাদের দেশে জাহাজ তৈরি শিল্প দেশের উন্নয়নে বড় অবদান রাখছে। এই মেঘনার তীরে গজারিয়ায় শিপইয়ার্ড হওয়াতে কাজেরও অনেক সুযোগ তৈরি হয়েছে। কারণ এখানে বিস্তীর্ণ জমি ও গভীর পানি রয়েছে।’

বাংলাদেশে সহজলভ্য শ্রম কাজে লাগিয়ে তিনি শিল্পপতিদের জাহাজ নির্মাণ শিল্পে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠান স্বাগত বক্তব্য রাখেন এনইএসএলের চেয়ারম্যান মো. সাইফুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘আমরা জাহাজ নির্মাণ শিল্পে সারা বিশ্বে বাংলাদেশকে পরিচিত করতে চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘জাহাজ নির্মাণের মাধ্যমে বাংলাদেশের অনেক বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় হচ্ছে। বিদেশ থেকে জাহাজ আমদানি করতে যে পরিমাণ অর্থ ব্যয় হয়, তার প্রায় অর্ধেক অর্থ ব্যয়ে দেশেই জাহাজ নির্মাণ সম্ভব।’

দেশের উদীয়মান এই শিল্প খাতে সহযোগিতার জন্য তিনি সরকার ও গণমাধ্যমের সহায়তা চান।

মনোয়ারুল ইসলাম, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply