পদ্মায় ট্রলারে ডাকাতি, আহত ৩

মাওয়া-কাওড়াকান্দি রুটে একটি ট্রলারে যাত্রীবেশী ডাকাতের ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছে তিন জন। সোমবার রাত ৮টার দিকে মাওয়া থেকে কাওড়াকান্দিগামী ওই ট্রলারে পদ্মা নদীর ওপর ডাকাতি হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। ডাকাতদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আল-আমিন খান (২২) ও মো. ইউসুফ (৩০)।

প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী ডাকাতি চালানোর পরে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাউলিয়ারচর এলাকায় পদ্মা নদীর একটি চরে যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে ট্রলার নিয়ে পালিয়ে যায় ডাকাতরা।

ট্রলারের যাত্রীদের উদ্ধৃতি দিয়ে শিবচর থানার ওসি মো. আব্দুর রাজ্জাক সাংবাদিকদের বলেন, সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মাওয়া থেকে শতাধিক যাত্রী নিয়ে ট্রলারটি কাওড়াকান্দির উদ্দেশে ছেড়ে যায়। প্রায় আধা ঘণ্টা পর যাত্রীবেশী ১২-১৪ জন ডাকাত অস্ত্রের মুখে ট্রলারটির দখল নিয়ে তা চাঁদপুরের দিকে ঘুরিয়ে নেয়।

তিনি জানান, এরপর ট্রলারে ব্যাপক লুটপাট চালায় এবং কয়েকজনকে কুপিয়ে জখম করে ডাকাতরা। তল্লাশির নামে নারী যাত্রীদের লাঞ্ছিত করলে কয়েকজন পদ্মায় ঝাঁপিয়েও পড়ে বলে জানিয়েছে যাত্রীরা।

ট্রলারের যাত্রী পটুয়াখালী শহরের বাসিন্দা সঞ্জয় মালো জানান, প্রায় দেড় থেকে দুই ঘণ্টাব্যাপী ডাকাতি চালিয়ে একটি চরে হাঁটু পানির মধ্যে যাত্রীদের নামিয়ে ট্রলার নিয়ে পালিয়ে যায় ডাকাত দলটি।

পরে যাত্রীদের চিৎকার শুনে আরেকটি ট্রলার ওই চরে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে।

যাত্রীদের নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কারসহ প্রায় ২০ লাখ টাকার মালামাল লুট হয়েছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক।

ট্রলারের যাত্রী গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরের বাসিন্দা লন্ডন ফেরত শাহজামাল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, তার সঙ্গে থাকা নগদ টাকা ও কয়েকটি দামী জিনিসপত্রসহ প্রায় পাঁচ লাখ টাকার জিনিসপত্র নিয়ে গেছে ডাকাতরা।

বিডি নিউজ 24

Leave a Reply