বেসরকারি অর্থায়নে পদ্মা সেতু: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, “পদ্মা সেতুর মতো বড়ো প্রকল্পের জন্য আমরা কেবল দাতা সংস্থার ওপর নির্ভর করে থাকবো না। পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপের মাধ্যমে পদ্মা সেতু নির্মাণের অর্থায়ন করা হবে।” তিনি বলেন, “পদ্মা সেতু নিয়ে বিশ্বব্যাংক দুর্নীতির অভিযোগ করলেও কে, কখন, কোথায় দুর্নীতি করেছে তার কোনো জবাব বিশ্বব্যাংক দিতে পারে নি।

শনিবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে এক প্রেস কনফারেন্সে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

পাঁচ দিনের মায়ানমার ও ইন্দোনেশিয়া সফর শেষে ফিরে শনিবার তিনি এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। এসময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডা. দীপু মনি, রেল মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এবং তথ্যমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতু নিয়ে বিশ্বব্যাংকের অভিযোগ অনুমাননির্ভর দাবি করে বলেন, ‘‘বিশ্ব ব্যাংক কি টাকা ছাড় করেছে, করে নাই। টাকা না দিলে দুর্নীতি কিভাবে হলো? ধারণার বশবর্তী হয়ে তারা একথা বলেছে। কোন যুক্তি দেখাতে পারে নাই। দুর্নীতি হলো কোথায়?’’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘‘পদ্মা সেতুর দুর্নীতি নিয়ে জানতে চেয়ে বিশ্ব ব্যাংককে চিঠি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কিন্তু তারা কোনো তথ্য দিতে পারে নি। বিশ্ব ব্যাংক বলেছে কানাডা পুলিশের কাছে জানতে।’’

পদ্মা সেতুর অর্থায়ন সর্ম্পকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘পদ্মা সেতুর টাকা বন্ধের যৌক্তিকতা আছে কিনা জানি না। এখন থেকে আমরা বড়ো প্রকল্পগুলো নিজেদের দেশীয় অর্থায়রে পিপিপি’র মাধ্যমে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’’

আন্তজাতিক সফরের সময়ে বেশ কিছু দেশের কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে তার কথা হয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘অস্ট্রেলিয়াতে আলোচনা হয়েছে, জার্মানিতে আলোচনা হয়েছে। আমাদের কথা হলো কোনো দেশের আগ্রহ থাকরে তারা অর্থায়ন করবে। কারণ তাদের অনেকেরই উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের অভিজ্ঞতা রয়েছে।’’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘‘তবে সবচেয়ে বড়ো কথা ব্রীজ দরকার। যেভাবে পারি সেভাবে করবো।’’

দক্ষিণাঞ্চলে উন্নয়নের জন্য পদ্মা সেতু অপরিহার্য বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

পাঁচটা থেকে শুরু করে ঘণ্টাব্যাপী প্রেস কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের সঙ্গে অনেক বিষয় নিয়ে কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ সরকারের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী পদ্মা সেতু নির্মাণের কথা থাকলেও দাতা সংস্থাগুলো প্রকল্প শুরুর আগেই তাতে আপত্তি জানিয়েছে। এ নিয়ে বিপাকে রয়েছে সরকার। দেশের বিভিন্ন মহল থেকে নানা সমালোচনা হচ্ছে পদ্মা সেতুর নির্মাণ নিয়ে।

বার্তা২৪ ডটনেট/এএএস/জাই

Leave a Reply