ফাহমিদা নবী ও গোলাম মোর্তোজা সংবর্ধিত

রাহমান মনি
বিশিষ্ট কণ্ঠশিল্পী ফাহমিদা নবী এবং সাংবাদিক, সাপ্তাহিক সম্পাদক গোলাম মোর্তোজাকে সংবর্ধনা দিয়েছে জাপান প্রবাসী বাংলাদেশ কমিউনিটি। ৪র্থ প্রবাস প্রজন্ম জাপান ২০১১’র আয়োজনে বাংলাদেশ থেকে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে এই দুই গুণীজন জাপান সফর উপলক্ষে প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটির পক্ষ থেকে এই সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। ফাহমিদা নবীকে ৪র্থ প্রবাস প্রজন্ম সম্মাননা দেয়া হয়। ২য় প্রবাস প্রজন্ম ২০০৮-এ জনাব গোলাম মোর্তোজাকেও এই সম্মাননা দেয়া হয়েছিল।

২৩ নভেম্বর রাজধানী টোকিওর কিতা সিটি আকাবানে বুনকা সেন্টার বিভিও হলে এই সংবর্ধনা দেয়া হয়। গোলাম মাছুম জিকোর পরিচালনায় সংবর্ধনা সভার সভাপতিত্ব করেন প্রবাস প্রজন্ম জাপানের আহ্বায়ক মুনশী খ. আজাদ। অনুষ্ঠানের শুরুতেই ফাহমিদা নবীকে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান প্রবাসী শিল্পী যেরোম গোমেজ এবং গোলাম মোর্তোজাকে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান ইন্দ্রমোহন রাজবংশী তনয়া জাপান প্রবাসী সঙ্গীতা রাজবংশী দাশ। এরপর প্রবাস প্রজন্মের ক্যামেরায় তোলা জাপান সফরের কিছু উল্লেখযোগ্য ছবি উপহার হিসেবে তুলে দেন প্রবাস প্রজন্ম জাপানের অন্যতম আয়োজক এমডি এস ইসলাম নান্নু।

আগেরকার অনুষ্ঠান ঝুলে যাওয়ার কারণে অনুষ্ঠান শুরু করা বিলম্ব হলেও এই দুই গুণীজনের সান্নিধ্য পেতে আগতদের উৎসাহের কমতি ছিল না। বক্তব্য রাখেন কাজী ইনসানুল হক, এমডি এস ইসলাম নান্নু, নাসেরুল হাকিম, মো. আনোয়ার, সর্বানু দাস, রাহমান মনি, মনি হাকিম, মো. রানা, মাসুদ আহমেদ, বিপ্লব মল্লিক, সঙ্গীতা রাজবংশী প্রমুখ। বক্তারা অতিথিদের জাপান সফরকে স্বাগত জানিয়ে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা জানান।

সংবর্ধনার জবাবে দুই অতিথি জাপানে তাদের আমন্ত্রণ জানিয়ে সম্মানিত করার জন্য সকলকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়ে জাপান প্রবাসীদের আতিথেয়তার ভূয়সী প্রশংসা করেন। জাপান প্রবাসীদের স্বতঃস্ফূর্ততায় এবং দলমত নির্বিশেষে এমন একটি সফল আয়োজনের জন্য আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তারা বলেন, শিশুদের জন্য কেউ কাজ করেন না, অথচ শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তবে বড়দের আয়োজন যতটা সহজ তার চেয়ে অনেকগুণ বেশি কঠিন শিশুদের আয়োজন। এটা রীতিমতো একটা চ্যালেঞ্জ। জাপান প্রবাসীরা সেই চ্যালেঞ্জকে সফলভাবে সম্পন্ন করতে পেরেছে। এটা পৃথিবীর অন্যান্য দেশে প্রবাসীদের প্রেরণা হতে পারে। এই জন্য তারা জাপান প্রবাসীদের ধন্যবাদ জানান।

উল্লেখ্য ২০০৭ সালে প্রবাস প্রজন্ম জাপান যাত্রা শুরু করে। দুই প্রজন্মের মিলন মেলা খ্যাত এই আয়োজনে এ পর্যন্ত মুহম্মদ জাফর ইকবাল, ফরিদুর রেজা সাগর, গোলাম মোর্তোজা এবং রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাকে বিগত দিনে সম্মাননা দিয়েছে। এবার ফাহমিদা নবী এবং জাপানে এই সময়ের অত্যন্ত জনপ্রিয় মডেল, টিভি ব্যক্তিত্ব, সঙ্গীত শিল্পী, বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রোলাকে সম্মাননা জানানো হয়। ২৪ নভেম্বর দুই অতিথি বাংলাদেশের উদ্দেশে জাপান ত্যাগ করেন।

rahmanmoni@gmail.com

সাপ্তাহিক

Leave a Reply