খোকার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি দুদকের

ঢাকা সিটি করপোরেশনের (ডিসিসি) সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার এবং মশক নিধন, জনবল নিয়োগ, ইজারা, দোকান বরাদ্দ, বাণিজ্যিক ও আবাসিক ভবনের ট্যাক্স হ্রাস, স্বাস্থ্যসেবা, গাড়ি ক্রয়-বিক্রয়, মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ প্রভৃতি কাজে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় শতাধিক মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দু-এক মাসের মধ্যেই মামলার প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে দুদক সূত্রে জানা গেছে।

চলতি বছর জানুয়ারিতে দুদকের সহকারী পরিচালক হারুনূর রশীদের নেতৃত্বে ছয় সদস্যের বিশেষ অনুসন্ধানী দল গঠন করা হয়। কমিশনের নির্দেশক্রমে অনুসন্ধানকারী দল ২০০০ সাল থেকে গত বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত সব নথিপত্র অনুসন্ধানে কাজ করে। ইতোমধ্যে হোল্ডিং ট্যাক্সসহ বেশ কয়েকটি বিষয়ে প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন দুদকের অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তারা। চলতি মাসে অথবা আগামী মাসের শুরুতে কমিশনের নিয়মিত বৈঠকে এসব মামলা দায়েরের অনুমোদন দেওয়া হবে।

সংশ্লিষ্ট অনুসন্ধানকারী এক কর্মকর্তা জানান, যেহেতু প্রতিটি অভিযোগের বিষয়ে আলাদা-আলাদা মামলা হবে, এক্ষেত্রে কিছু জটিলতাও রয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, দুদক অনুসন্ধানে শুধু হোল্ডিং ট্যাক্স ফাঁকির বিষয়ে প্রায় ১০০ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। কর ফাঁকির সুযোগ দেওয়া ও অবৈধভাবে ট্যাক্স কমানোর কারণে কমিটির প্রধান হিসেবে অভিযুক্ত করা হবে ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়রকেও। এছাড়া প্রায় ৫০টি প্রকল্পে অনিয়মের নথি পেয়েছে দুদক। এগুলোয়ও সাদেক হোসেন খোকার সম্পৃক্ততা রয়েছে।

এসব বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা গতরাতে আমাদের সময়কে বলেন,‘জরুরি আইন পরবর্তি অবৈধ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় থেকেই আমাকে নিয়ে নানা কথা হচ্ছে। দুদক আমার বিরুদ্ধে মামলা করবে কি করবে না, সে বিষয়ে আমি অবগত নয়। দুদকের কেউ আমার সঙ্গে কোনও বিষয়ে যোগাযোগও করেনি। তারা আমার বিষয়ে কার ইন্ধনে কোথায় কি করছেন, তা আমার জানাও নেই।’ খোকা আরও বলেন, ‘সরকারের ইন্ধনে দুদক চাইলে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে আমারৃ বিরুদ্ধে অনেক মামলা করতে পারে। আমি শুধু বলব আমার বিরুদ্ধে ক্ষমতা অপব্যবহার, দুর্নীতির অভিযোগে যত মামলাই হোক না কেনও একটি মামলাও কেউ আদালতে গিয়ে প্রমাণ করতে পারবে না। অভিযোগ প্রমাণের কোনও আলামত কারও কাছেই নেই। আমি স্বচ্ছ ছিলাম এবং আছি।’

আমাদের সময়

Leave a Reply