টঙ্গীবাড়ীর মহিলা মেম্বারের দিন কাটে অনাহারে

রাস্তার পাশে ব্রিজের ঢালে দোচালা ১২টিনের একটি ঘর। পাট খড়ির বেড়ার ফাঁক দিয়ে উঁকি দিলে ছেড়া কাঁথা বালিশ ও কাপড় দেখা যায়। সেই ঘরে বাস করেন স্বামী ও ৪ সন্তান নিয়ে টঙ্গীবাড়ী উপজেলার আউটশাহী ইউনিয়নের ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের মেম্বার রেনু বেগম। রাস্তার পাশে ঘর, সারা রাত ঘুম হয় না গাড়ির শব্দে। তার স্বামী আনোয়ার ঢালী প্রতি দিন চালিয়ে যে টাকা রোজগার করে তা দিয়ে অভাবের সংসার চলে না। এবার জোটবদ্ধ হয়ে জনগণ নির্বাচনে দাঁড় করিয়ে ভূমিহীন রেনুকে মহিলা মেম্বার নির্বাচিত করেছে। কিন্তু বাদ সেজেছে সেই জনগণ। মেম্বার হওয়ার কারণে রেনুকে স্থানীয়রা রাস্তার মাটির কাজে বাধা দেয়। রেনু স্বামীর স্বল্প রোজগারের পাশপাশি রাস্তার সরকারি মাটি কাটার কাজ করতো। নির্বাচিত মেম্বার হয়েও এখনো তাকে পরিবারের অভাব মেটাতে রাস্তার মাটি কাটার কাজ করতে হয়। একটু বৃষ্টি হলেই তার ঘরে পানি পড়ে। বড় ছেলে আল আমিন মাদ্রাসায় ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে ছাত্র। মেম্বার নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকাবাসীর কাছে সাহায্য সহযোগিতা চাইলে এখন আর আগের মতো কেউ দেয় না বলে জানান রেনু বেগম।

ডেসটিনি

Leave a Reply