সিরাজদিখানে এসি-ল্যান্ডের পদ ৫ মাস ধরে শূন্য: ভোগান্তি

মোজাম্মেল হোসেন সজল, মুন্সীগঞ্জ: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলা ভূমি অফিসে সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদটি প্রায় ৫ মাস ধরে শূন্য হয়ে রয়েছে। কিন্ত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ পদে নতুন কোন কর্মকর্তাকে নিয়োগ দিচ্ছেন না। ফলে অফিসের লোকজনসহ জমি সংক্রান্ত ঘটনায় জড়িত হাজারো মানুষ ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানা যায়, এ অফিসে সর্বশেষ এসি-ল্যান্ড হিসেবে কর্মরত ছিলেন বেগম মাহবুবা আইরিন। তিনি ২০১১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর অন্যত্র বদলি হওয়ার পর থেকে এ অফিসে আর কোন এসি-ল্যান্ড নিয়োগ হয়নি। উপজেলা ভূমি অফিসের সহকারী কমিশনার পদটির মতো গুরুত্বপূর্ণ পদ খালি থাকায় জমি সংক্রান্ত কাজে আসা ব্যক্তিদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এ পদটি শূন্য থাকায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করলেও জনগণের ভোগান্তির শেষ নেই। উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ দাপ্তরিক কাজের পাশাপাশি সামাজিক কর্মকাণ্ডে যোগ দেয়া, এরপর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ভূমি অফিসের কাজকর্ম করতে হচ্ছে, সঙ্গত কারনেই সময় লেগে যায়। সাপ্তাহে ১দিন ভূমি অফিসে বসেন তিনি। ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে জনগণকে।

ভূমি অফিসে কাজে আসা জৈনসারের নূরুল ইসলাম সিকদার জানান, এমনিতেই ভূমি অফিসে নানা সমস্যা, এসি-ল্যান্ড না থাকায় আমাদের ভোগান্তি আরো বেড়ে গেছে। সন্তোষ পাড়ার জুয়েল আহমেদ জানান, সপ্তাহে ১দিন জমির মামলা দেখে, অনেক ভীড় হয়, সকাল-সন্ধ্যা শত শত লোক দাঁড়িয়ে থেকেও অনেককে ফেরত যেতে হয়। কাজের জন্য দিনের পর দিন ঘুরতে হয়।

সিরাজদিখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো: ওয়াহেদুর রহমান জানান, উপজেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার (ভূমি) গুরুত্বপূর্ন পদটি ভারপ্রাপ্ত দিয়ে চলছে। ৫ মাস হলো পদটি খালি রয়েছে, নতুন নিয়োগ হয় নাই্।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply