সিরাজদিখানে প্রভাব খাটিয়ে বনবিভাগের গাছ কেটে নিয়ে গেছে দূর্বৃত্তরা

ইকবাল হোছাইন ইকু : গাছ মানুষকে ছায়া দেয়, অক্সিজেন দেয়, কার্বনডাই অক্সাইড গ্রহণ করে, জ্বালানী দেয়াসহ প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষা করে। আর সেই গাছ বনবিভাগ ও সরকারী নিয়মনিতীকে তোয়াক্কা না করে এলাকার প্রভাবশালী কিছু লোক ক্ষমতার দম্ভ দেখিয়ে প্রকাশ্যে কেটে নিয়েছে। উপজেলার সিরাজদিখান-কুসুমপুর রাস্তার কুসুমপুর গ্রামের রাস্তার পশ্চিম ও পূর্ব পাশে বেশ কয়েকটি গাছ দুর্বিত্তরা কয়েকদিন আগে কেটে নিয়ে গেছে। সরেজমিনে জানা যায়, মৃত শাজাহান শেখের ছেলে মোঃ কবির হোসেন তার লোকজন দিয়ে প্রকাশ্যে বনবিভাগের মূল্যবান গাছকাটার হোতা।

এব্যাপারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভাই আমরা গরীব মানুষ। কবিরের বিরুদ্ধে কথা বলতে গেলে আমাদের অনেক সমস্যা হবে। সে ছাত্রলীগ নেতা মোঃ শিশিরের বোন জামাই। সরকারের জিনিস সরকার দেখলেইতো হয়।

অভিযুক্ত ব্যক্তি কবিরের সাথে কথা বললে সে জানায়, গাছকাটার কথা শিকার করে বনবিভাগের সাথে যোগাযোগ করার কথা বলেন। সে আরো জানায়, বনবিভাগের কাছে অনুমতি নিয়েই গাছ কেটেছি। অথচ সে সাংবাদিকদের বনবিভাগের গাছ কাটার অনুমতিপত্র দেখাতে পারেনি।

উপজেলার বন কর্মকর্তা হুমায়ুন কবিরের সাথে কথা বললে তিনি জানান, কুসুমপুরে আমরা কাউকে গাছ কাটার অনুমতি দেইনি।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ওয়াহেদুর রহমানের সাথে কথা বললে তিনি জানান, এব্যাপারটি আমার জানা নেই, যদি কেউ গাছ কেটে থাকে তাহলে আইনগতভাবে তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিডি রিপোর্ট ২৪

Leave a Reply