ভূমি অফিসে হট্টগোল : সহকারী কমিশনারের সাক্ষর পেতে ২১ দিনের অপেক্ষা!

সম্পত্তির নাম জারীকে কেন্দ্র করে মুন্সীগঞ্জ শহরের লিচুতলা এলাকায় সদর উপজেলা ভূমি অফিসে আজ সোমবার বিকেলে হট্টগোল হয়েছে। বসত বাড়ি ও জমিজমার নামজারী করতে আসা কয়েক যুবক ও ভূমি অফিসের অফিস সহকারী কাদির হোসেনের মধ্যে এ হট্টগোলের ঘটনা ঘটে। এ সময় ভূমি অফিসের ওই অফিস সহকারী দম্ভোক্তি করে বলেন- নামজারী করতে সহকারী কমিশনারের (ভূমি) একটি সাক্ষর নিতে ২১ দিন সময় লাগবে। কেউ কোন উচ্চ বাক্য করবেন না। ২১ দিন পর আসেন নামজারী কাগজ পাবেন। মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা ভূমি অফিসের সহকারী কমিশনার লাবনী চাকমার সাক্ষর ছাড়া বাড়ি-ঘর ও জমি-জমার নামজারী করা যায় না বিধায় অফিস সহকারী কাদির হোসেনের পিছু পিছু ধরনা দিতে হচ্ছে ভুক্তভোগীদের। নামজারী করতে আসা শহরের মালাপাড়া এলাকার সফি মোল্লা এক সপ্তাহ আগে নিজ বাড়ির নামজারী করতে কাগজ পত্র জমা দেন। সাত দিন ধরে ভূমি অফিসের এ সহকারীর কাছে ধরনা দিলেও সফি মোল্লার কাজ শেষ হয় না। পরে সোমবার বিকেল ৩ টার দিকে সফি মোল্লার ছেলে রিপন মোল্লা নামজারীর কাগজ চাইলে অফিস সহকারী ৫ হাজার টাকা ঘুষ দাবী করেন বলে ভুক্তভোগী দাবী করেছেন। এ সময় অফিস সহকারীর দাবীকৃত ঘুষ না দেয়ায় তিনি ২১ দিন অপেক্ষা করতে বলে ভুক্তভোগীকে অফিস থেকে বের হয়ে যেতে বলেন। এ নিয়ে কথা কাটাকাটি ও হট্টগোলের ঘটনার সূত্রপাত হয়। তবে, অফিস সহকারী কাদির হোসেন ঘুষ দাবীর কথা অস্বীকার করেছেন। এ ব্যাপারে সহকারী কমিশনার লাবনী চাকমার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply