শহীদ ৩ সেনানীর আত্মার মাগফেরাত কামনা

বিডিআর বিদ্রোহে নিহত মুন্সীগঞ্জের ৩ সেনা কর্মকর্তার পৈত্রিক বাড়িসহ বিভিন্ন মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। তৃতীয় শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার নিহত সেনা কর্মকর্তাদের পরিবার মুন্সীগঞ্জ শহরে ও গজারিয়া উপজেলায় পৃথকভাবে এ আয়োজন করেছেন।

এছাড়া নিহতের পরিবারের সদস্যরা শনিবার সকালে ঢাকার বনানী কবরস্থানে গিয়ে সেনা কর্মকর্তাদের কবর জেয়ারত করেন। এ সময় মেজর মাহমুদুল হাসানের মা আলহাজ মমতাজ বেগম এমপিসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ ৫৮ শহীদ সেনা কর্মকর্তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন।

২০০৯ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি বিডিআর বিদ্রোহে ৫৮ সহকর্মীর সঙ্গে শাহাদাত বরণ করেন শহীদ মেজর মাহমুদুল হাসান স্বপন, মেজর মোফারফ হোসেন ও মেজর হুমায়ুন কবির।

মেজর মাহমুদুল হাসান স্বপনের বাড়ি মুন্সীগঞ্জ শহরের মধ্য কোটগাও এলাকায়। মেজর মোশারফ হোসেনের বাড়ি গজারিয়া উপজেলার টেঙ্গারচর গ্রামের মীরেরগাঁও ও মেজর হুমায়ুন কবিরের বাড়ি একই ইউনিয়নের বৈদ্যেরগাঁও গ্রামে।

মেজর মাহমুদুল হাসান স্বপনের ভাই মইনুল হাসান তপন জানান, শনিবার সকালে পরিবারের সবাই বনানী কবরস্থানে গিয়ে সেনা কর্মকর্তাদের কবর জেয়ারত করেন।

এছাড়া শুক্রবার পৈত্রিক বাড়িতে ও ১২টি মসজিদে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছিল।

গজারিয়া থেকে আমিরুল ইসলাম জানান, ৩য় শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে শনিবার উপজেলার টেঙ্গারচর ইউনিয়নের মীরেরগাঁও গ্রামে মেজর মোশারফ হোসেনের ও একই ইউনিয়নের বৈদ্যেরগাঁও গ্রামে মেজর হুমায়ুন কবিরের পৈত্রিক বাড়িতে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply