নারায়ণগঞ্জে স্ত্রী-শ্যালিকাকে জখম করে আত্মহত্যার চেষ্টা

পারিবারিক কলহের জের ধরে নারায়ণগঞ্জে স্ত্রী ও শ্যালিকাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে পরে রাসায়নিক পদার্থ ও রঙ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন স্বামী। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় শহরের খানপুর ব্র্যাঞ্চ রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

হামলার ঘটনা গুরুতর আহত মুন্নি বেগম (২৫) ও তার বোন বেবীকে (১৮) আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আর রঙ খাওয়া কালাচাঁন (৩২) নারায়ণগঞ্জ শহরের খানপুর ২০০ শয্যার হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

আহতদের উদ্ধৃত করে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার তোফাজ্জল হোসেন বাংলানিউজকে জানান, মুন্নি বেগমের স্বামীর বাড়ি মুন্সীগঞ্জ জেলায়। পারিবারিক কলহের জের ধরে মুন্নি কয়েকদিন আগে শহরের খানপুরে তার বাবার বাড়িতে চলে যান।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কালাচাঁন তার শ্বশুরবাড়িতে আসেন। এ সময় তার সঙ্গে স্ত্রী মুন্নির মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে তিনি ধারালো অস্ত্র দিয়ে মুন্নি ও তার ছোট বোন বেবীকে কুপিয়ে আহত করেন। পরে তিনি নিজেই রাসায়নিক জাতীয় পদার্থ ও রঙ খেয়ে ফেলেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply